নগদ ৬ লাখ টাকাসহ কাস্টমস কর্মকর্তা আটক

সাময়িক বরখাস্ত, তদন্ত কমিটি গঠন

আজাদী প্রতিবেদন

শুক্রবার , ১১ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৪:১৭ পূর্বাহ্ণ
694

চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে ‘ঘুষের’ নগদ ৬ লাখ টাকাসহ মো. নাজিম উদ্দিন আহমদ নামে এক রাজস্ব কর্মকর্তাকে আটক করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। গতকাল সন্ধ্যায় তাকে আটক করা হয়।
জানা গেছে, দুদকের ‘হটলাইন-১০৬’ এ পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে গতকাল সকালে অভিযানে নামেন কর্মকর্তারা। সকাল সাড়ে ৯টার দিকে তারা নাজিম উদ্দিন আহমদের অফিস কক্ষে একটি শিপিং এজেন্ট কোম্পানির নথিপত্র পরীক্ষা করে সেখানে দুর্নীতির সংশ্লিষ্টতা পান। পরে কর্মকর্তারা তার আলমারি থেকে নগদ ৬ লাখ টাকা জব্দ করেন। এ প্রসঙ্গে অভিযানে নেতৃত্ব দেয়া দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মাহবুবুল আলম উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেন, দুদুকের হটলাইনে পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে আমরা অভিযান চালাই। অভিযানে আমরা রাজস্ব কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিন আহমদের কক্ষে ঘুষ লেনদেনের সংশ্লিষ্টতা পাই। প্রথমে তার আলমারির চাবি চাইলে তিনি দিতে অস্বীকৃতি জানান। পরে বিকাল ৪টার দিকে আমরা তার আলমারি থেকে ৬ লাখ টাকা জব্দ করি।
অভিযানে অংশ নেয়া দুদক চট্টগ্রাম কার্যালয়ের অপর উপ-পরিচালক লুৎফুল কবির চন্দন বলেন, দুদক মহাপরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ মুনীর চৌধুরী স্যারের নির্দেশনা অনুযায়ী আমরা কাস্টম হাউসে অভিযান চালাই। সেখানে রাজস্ব কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিন আহমদকে ৬ লাখ টাকাসহ আটক করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের ডেপুটি কমিশনার (প্রিভেন্টিভ) মেহরাজ উল আলম সম্রাট বলেন, দুদকের অভিযানকালে আমরা সকাল থেকে তাদেরকে সব ধরনের সহায়তা করি। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউস কোনো ধরনের দুর্নীতিকে কখনো প্রশ্রয় দেয়নি। ইতোমধ্যে ওই রাজস্ব কর্মকর্তাকে আমরা সাময়িক বরখাস্ত করেছি। এ ঘটনা তদন্ত করতে ৬ সদস্য বিশিষ্ট একটি বিভাগীয় কমিটি গঠন করা হয়েছে। চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের এডিশনাল কমিশনার মো. ফাইজুর রহমানকে এই তদন্ত কমিটির প্রধান করা হয়েছে।
চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসের কমিশনার ড. এ কে এম নুরুজ্জামান বলেন, দুর্নীতিগ্রস্ত কিছু কর্মকর্তার জন্য কাস্টম ও এনবিআরের (জাতীয় রাজস্ব বোর্ড) ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হবে, এটা কোনোভাবেই মেনে নেয়া যায় না। প্রধানমন্ত্রী ও অর্থ মন্ত্রণালয়ের দুর্নীতিমুক্ত এনবিআর গঠনের যে ভিশন, তা কয়েকজন অসৎ কর্মকর্তার জন্য নষ্ট হতে দেওয়া যাবে না। চট্টগ্রাম কাস্টম ভবিষ্যতে এই বিষয়ে আরও সতর্ক থাকবে।
চট্টগ্রাম কাস্টমসের কর্মকর্তাদের সাথে কথা বলে জানা যায়, রেভিনিউ অফিসার নাজিম উদ্দীনের বাড়ি ফেনীতে। তার স্ত্রী ও তিন সন্তানসহ পরিবারের সদস্যরা ঢাকার শ্যামলীতে বসবাস করেন। চট্টগ্রামে চাকরি করলেও তিনি ছুটির দিনে ঢাকায় চলে যান। গতকালও অফিস শেষে ফ্লাইটে তার ঢাকায় চলে যাওয়ার কথা ছিল।
প্রসঙ্গত, আটক রাজস্ব কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিন আহমদ ১৯৯১ সালে কাস্টম এঙাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট খুলনায় ইন্সপেক্টর পদে যোগ দেন। পর্যায়ক্রমে তিনি ঢাকা কাস্টম এঙাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট ঢাকা দক্ষিণ ও পূর্ব জোনে কর্মরত ছিলেন। সর্বশেষ ২০১৭ সালে তিনি চট্টগ্রাম কাস্টম হাউসে সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা হিসেবে যোগ দেন। পরে রাজস্ব কর্মকর্তা (প্রশাসন) হিসেবে পদোন্নতি পান।

- Advertistment -