দেশী স্বাদে বেশী মজা

রেসিপি দিয়েছেন রুবিনা আফরিন

রবিবার , ২৯ জুলাই, ২০১৮ at ৮:১৬ পূর্বাহ্ণ
142

ঝাল ঝাল নোনা ইলিশের কাবাব

উপকরণ: নোনা ইলিশ বড় এক পিস, মসুর ডাল ১/৩ কাপ, পেঁয়াজ, রসুন বাটা দুই চা চামচ, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ, ধনেপাতা কুচি এক চা চামচ , সয়াবিন তেল পরিমাণমতো, লবণ স্বাদমতো, কাঁচামরিচ/ বোম্বাই মরিচ বাটা বা মিহি কুচি পরিমাণমতো, আস্ত জিরা, ভাজা জিরার গুঁড়া পরিমাণমতো

প্রণালি: প্রথমে নোনা ইলিশ সারা রাত ভিজিয়ে ভালোভাবে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এরপর গরম তেলে এপিঠওপিঠ করে ভেজে কাটা বেছে নিন। মসুর ডাল ঘণ্টাখানেক ভিজিয়ে রাখার পর মাছ, ডাল, পেঁয়াজ, রসুন, মরিচসহ একসঙ্গে মিশিয়ে বেটে/ব্লেন্ড করে নিন। এবার ভাজা জিরা গুঁড়া, ধনেপাতা কুচি, আস্ত জিরা যোগ করে মেখে নিয়ে কাবাবের আকারে বানিয়ে ডুবো তেলে ভেজে নিন। এবার পরিবেশন করুন।

কুমড়ো ফুলের বড়া

উপকরণ : চালের গুঁড়াচার টেবিল চামচ , বেসনচার টেবিল চামচ, পিঁয়াজ কুচিএকটা মাঝারি আকারের, ধনেপাতা কুচিএক চামচ, কাঁচামরিচ কুঁচিদুইতিনটি, হলুদ গুঁড়াএক চা চামচ, লবণস্বাদ অনুযায়ী, তেলপরিমাণ মতো

প্রণালি: একটি পাত্রে চালের গুঁড়া ও বেসন নিন। এর মধ্যে পিঁয়াজ, মরিচ, হলুদ গুঁড়া, ধনেপাতা ও লবণ দিন। এবার সব উপকরণগুলো ভালোভাবে মেশান। প্যানে তেল গরম করুন। তেল গরম হয়ে গেলে মিশ্রণের মধ্যে কুমড়ো ফুল ডুবিয়ে তা একে একে তেলে ছাড়তে থাকুন। হালকা বাদামি না হওয়া পর্যন্ত এপিঠ ওপিঠ করে ভেজে নিন। ব্যাস, তৈরি হয়ে গেল কুমড়ো ফুলের বড়া। গরম গরম মুচমুচে বড়া পরিবেশন করুন।

ঝিঙে দিয়ে চিংড়ি

উপকরণ: বড় পেঁয়াজ কুচি দুটি, রসুন কুচি করা চার কোয়া, চিংড়ি মাঝারি সাইজ ৮ থেকে ১০টি, ঝিঙে তিনচারটি, হলুদ গুঁড়া এক চা চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ, জিরা গুঁড়া এক চা চামচ, ধনে গুঁড়া এক চা চামচ, লবণ পরিমাণমতো, পানি এক কাপ।

প্রণালি: প্রথমে পেঁয়াজ কুচি, রসুন কুচি তেলের মধ্যে দিয়ে হালকা ভেজে নিয়ে চিংড়িগুলো দিয়ে দিতে হবে। তিন থেকে চার মিনিট ভাজা হলে ঝিঙে দিয়ে আরো চার থেকে পাঁচ মিনিট রান্না করতে হবে। পরে হলুদ গুঁড়া, মরিচ গুঁড়া, জিরা গুঁড়া, ধনে গুঁড়া, পরিমাণমতো লবণ দিতে হবে। তারপর আরো কিছুক্ষণ কষিয়ে এক কাপ পানি দিয়ে ঢাকনা দিয়ে রান্না করতে হবে। মাখা মাখা হলে নামিয়ে নিন এবং পরিবেশন করুন।

কাঁঠালের বিচির কাবাব

উপকরণ : কাঁঠালের বিচি এক কাপ, মাংসের কিমা এক কাপ, ডিম একটি, আদা বাটা এক চা চামচ, রসুন বাটা আধা চা চামচ, কাবাব মসলা এক চা চামচ, গরম মসলা এক চা চামচ, মরিচ গুঁড়া এক চা চামচ, গোলমরিচ গুঁড়া আধা চা চামচ, লবণ স্বাদমতো, তেল পরিমাণমতো।

প্রণালি: কাঁঠালের বিচি খোসা ফেলে তিন ঘণ্টা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন। এবার ওপরের লাল আবরণ পরিষ্কার করে নিন। বিচি সিদ্ধ করে বাটুন। এবার কিমা আদারসুন বাটা দিয়ে সিদ্ধ করে মিহি করে বেটে নিন। এরপর তেল ছাড়া সব উপকরণ একসঙ্গে মেখে গোলাকার চ্যাপ্টা কাবাব বানিয়ে ডুবো তেলে ভেজে পরিবেশন করুন।

কাঁঠালের বিচি দিয়ে লইট্যা শুঁটকি ভুনা

উপকরণ: কাঁঠালের বিচি আধা কাপ, লইট্যা শুঁটকি মাছ আধা কাপ, রসুন কুচি আধা কাপ, পেঁয়াজ কুচি এক কাপ, রসুন বাটা এক চা চামচ, মরিচের গুঁড়া এক চা চামচ, হলুদ সামান্য পরিমাণ, কাঁচামরিচ ফালি চার থেকে পাঁচটি, তেল আধা কাপ, লবণ স্বাদ অনুসারে, জিরার গুঁড়া এক চা চামচ, ধনে গুঁড়া আধা চা চামচ।

প্রণালি : প্রথমে শুঁটকি মাছ কুসুম গরম পানি দিয়ে ধুয়ে পরিষ্কার করে নিতে হবে। এরপর কাঁঠালের বিচি ঘষে ঘষে পরিষ্কার করে নিন। এবার কড়াইয়ে তেল দিয়ে রসুন কুচি দিয়ে একটু নেড়েচেড়ে পেঁয়াজ কুচি দিয়ে একে একে সব মসলা দিয়ে কষিয়ে শুঁটকি ও বিচি দিয়ে কষাতে হবে। খুব ভালো করে দুবার কষিয়ে তেলের ওপর উঠলে নামিয়ে নিন। এবার গরম ভাতের সঙ্গে পরিবেশন করতে পারেন।

x