দিলওয়ার : মানবতা ও মুক্তির কবি

সোমবার , ১ জানুয়ারি, ২০১৮ at ১২:১৮ অপরাহ্ণ
92

মানবতাবাদ ও মানুষের মুক্তির লক্ষ্যে নিবেদিতপ্রাণ অনন্য এক কবিসত্তা দিলওয়ার। মানবপ্রেম, মানবতাবাদ আর মানুষের মুক্তি ণ্ড এই ত্রয়ীর প্রতিষ্ঠায় প্রয়াসী ছিলেন তিনি। আজীবন তাঁর চেতনা ও কাব্যভাষায় গণমানুষের কথা বলেছেন; হয়ে উঠেছেন সাধারণের কবি। সাধারণ মানুষ তাঁর চেতনায় ও লেখক সত্তায় অন্তর্লীন। আজ কবির ৮১তম জন্মবার্ষিকী।

কবি দিলওয়ারের জন্ম ১৯৩৭ সালের ১ জানুয়ারি সিলেটে। সারাটা জীবন নিজ বাসভূমেই কেটেছে। তাঁর রচনার ভাষা সহজ, প্রাঞ্জল ণ্ড এই সহজতার মধ্যে রয়েছে বিশুদ্ধ ও নির্মোহ মানবচর্চার স্বাক্ষর। জীবনের গূঢ় সত্য, অসাম্প্রদায়িক চেতনা আর শ্রেণির ঊর্ধ্বে সর্বমানবের মর্যাদায় আস্থা তাঁর রচনাকে করেছে বিশিষ্ট। দিলওয়ার ছিলেন অসাম্প্রদায়িক, ধর্মনিরপেক্ষ, মুক্তবুদ্ধিসম্পন্ন ও যুক্তিবাদী। লেখকের বিভিন্ন রচনায় এর সুস্পষ্ট প্রভাব মেলে। তাঁর প্রকাশিত গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে : ‘ঐকতান’, ‘পূবাল হাওয়া’, ‘বাংলা তোমার আমার’, ‘উদ্ভিন্ন উল্লাস’, ‘রক্তে আমার অনাদি অস্থি’ প্রভৃতি। কবিতা ছাড়াও ছড়াগান, মুর্শিদী গান, ভ্রমণ কাহিনী ও প্রবন্ধ লিখেছেন। তাঁর সম্পাদনায় বেশ কিছু সাহিত্য সাময়িকী ও সংকলন বের হয়েছে। ‘সমস্বর লেখক ও শিল্পী সংস্থা’ নামে একটি সংগঠন গড়েছিলেন তিনি।

ঊনসত্তরের গণআন্দালন থেকে একাত্তরের স্বাধীনতা সংগ্রামে সংগঠনটি শক্তিশালী ভূমিকা পালন করে। কাজের স্বীকৃতি হিসেবে কবি পেয়েছেন বাংলা একাডেমি পুরস্কার, একুশে পদক, আবুল মনসুর স্মৃতি পুরস্কার। ২০১৩ সালের ১০ অক্টোবর প্রয়াত হন গণমানুষের কবি দিলওয়ার।

x