দার্শনিক জন লক : মানবতাবাদের অন্যতম রূপকার

বুধবার , ২৯ আগস্ট, ২০১৮ at ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ
139

ব্রিটিশ রাষ্ট্রব্যবস্থায় অর্থাৎ রাষ্ট্রনৈতিক ব্যবস্থার প্রবর্তনে শীর্ষস্থানীয় যেসব দার্শনিক গুরুত্বপূর্ণ অবদান রেখে গেছেন তাঁদের মধ্যে জন লক অন্যতম। বিশেষ করে টমাস হবসের পরেই গণ্য হয়েছেন জন লক। আজ তাঁর ৩৮৬তম জন্মবার্ষিকী।

জন লকের জন্ম ১৬৩২ সালের ২৯ আগস্ট। বস্তুবাদী এই দার্শনিক আমেরিকার স্বাধীনতা সংগ্রাম ও ফরাসি বিপ্লব দ্বারা প্রভাবিত হয়েছিলেন। ইংল্যান্ডে স্বৈরাচারী রাজতন্ত্রের পথ পরিহার করে নিয়মতান্ত্রিক রাজতন্ত্র ও সংসদীয় গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠার গৌরবময় বিপ্লবে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি। লকের দৃষ্টিতে, মানুষ রেষারেষি ও কলহপ্রবণ নয়, মানুষ যুক্তিপ্রবণ। সেই সাথে ভালোবাসা, অন্যের প্রতি সহানুভূতি, প্রীতি, কোমলতা প্রভৃতি মানবীয় গুণাবলিও মানুষের সহজাত। আর এ কারণেই মানুষ সমাজবদ্ধভাবে জীবনযাপন করতে চায়। মানুষের সমান অধিকারে আস্থাবান জন লক বিশ্বাস করতেন জীবন, ধনসম্পদ ও স্বাধীনতা সবাই সমানভাবে উপভোগের অধিকারী। সেই সাথে রাষ্ট্রীয় আইনের বাধ্যবাধকতার প্রতিও গুরুত্ব দেন তিনি। রাষ্ট্রক্ষমতা ও আইন সংক্রান্ত ব্যাপারে লক বিভিন্ন ধরনের সরকারের তত্ত্ব দিয়েছেন।

রাষ্ট্র ও সরকারের পৃথকীকরণে বিশ্বাসী লক বলতেন, সরকার পালটালেও রাষ্ট্র পালটাবার নয়। তিনি রাষ্ট্রের প্রয়োজনীয়তাকে উপলব্ধি করতেন মানুষের শ্রমের মাধ্যমে অর্জিত সম্পদ ও স্বাধীনতা রক্ষার জন্য।

তিনি বিশ্বাস করতেন, সার্বভৌমত্বের অধিকারী সকল জনগণ, আর রাষ্ট্রের অস্তিত্ব জনগণের জন্যই। ১৭০৪ সালে প্রয়াত হন জন লক।

x