দর্শকরা আসতে শুরু করেছে বিপিএলে

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শনিবার , ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ
19

এবারের বিপিএলে সবকিছু রয়েছে। তারকায় যেমন ঠাসা এবারের বিপিএল তেমনি প্রযুক্তিগত দিক থেকেও অনেক এগিয়ে এবারের বিপিএল। কিন্তু যে দর্শকরাই মাঠের প্রাণ, সে দর্শকরাই ছিলনা এতদিন ধরে। কেন র্দশকরা মাঠে আসছেনা তা নিয়ে কম আলোচনা হয়নি। শেষ পর্যন্ত দর্শকরা আসতে শুরু করেছে। গতকাল এবারের বিপিএলের হেভিওয়েট লড়াইয়ে দর্শকে ভরে গিয়েছিল মিরপুর শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের গ্যালারি। এমনিতেই প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক যে কোন ম্যাচে গ্যালারিতে যখন দর্শক উপস্থিতি থাকে না, ভক্তরা যখন মাঠ বিমুখ হন, গ্যালারি তখন কাঁদে। মুখ ফিরিয়ে নেয়া দর্শকদের প্রতি উদাত্ত আহবান জানায়-‘তোমরা এসো, আমাতে বস, আর আমাকে পূর্ণ কর। বিপিএলের গেল ৮ ম্যাচে ঠিক এভাবেই হয়তো নীরবে কেঁদেছে শেরে বাংলা স্টেডিয়ামের গ্যালারি। কিন্তু গতকাল শুক্রবার ভোজবাজির মতো বদলে গেল সেই চিত্র। গেল ৭ দিনের অবিরাম কান্না থামিয়ে গতকাল যেন হেসেছে হোম অব ক্রিকেট। দর্শকদের সরব উপস্থিতিতে গতকাল কানায় কানায় পূর্ণ স্টেডিয়ামের ৭টি গ্যালারি।
গতকালের ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল গত আসরের দুই ফাইনালিস্ট চ্যাম্পিয়ন রংপুর রাইডার্স এবং রানার্স আপ ঢাকা ডায়নামাইটস । আর এই দুই দলের হেভিওয়েট লড়াই দেখতে সকাল থেকেই মাঠের বাইরে দু’ দলের সমর্থকদের ঢল নামে। দুপুর ২টায় খেলা শুরু হওয়ার সাথে সাথে পরিপূর্ণ হতে থাকে গ্যালারি। এবারের বিপিএল মাঠে গড়ানোর প্রায় সপ্তাহ খানেক পর এই প্রথম মনে হচ্ছে সত্যিকার অর্থেই বিপিএল হচ্ছে। একে তো সাপ্তাহিক ছুটি তার ওপর আবার মাশরাফি-সাকিবের লড়াই। কাজেই সুযোগটি বোধ হয় কেউই মিস করতে চাননি। বিগ ম্যাচটির উত্তাপ সরাসরি গ্যালারি থেকে নিতে নিজ নিজ দলের জার্সি পরে নানান রঙে সেজে গ্যালারিতে এসেছে। প্রতিটি চার/ছয়ে আর উইকেট যাওয়ার সময় তাদের চিৎকার আর আনন্দ-উল্লাসে প্রকম্পিত মিরপুরের আকাশ-বাতাস। প্রত্যেক দলের সমর্থকই সাথে করে ঢোল-বাদ্য বাজনা নিয়ে এসেছে। ছোট বড় দলীয় পতাকাতেও ছেয়ে গেছে পুরো গ্যালারি।
তবে ছুটির দিনে গ্যালারিতে আসাটা সার্থক হয়েছে ঢাকার দর্শকদের। কারণ শ্বাসরূদ্ধকর এক ম্যাচে রংপুর রাইডার্সকে একেবারে শেষ বলে ২ রানে হারিয়েছে ঢাকা। তাই তাদের আনন্দটা ছিল একটু বেশি। তবে গতকাল মাঠের দর্শকরা দারুণ উপভোগ করেছে দিনের প্রথম ম্যাচটি। চার আর ছক্কার সাথে বোলাররা উইকেটও পেয়েছে নিয়মিত। তাই দর্শকদের যে প্রত্যাশা সেটা একেবারে ষোল আনাই পূরণ হয়েছে। একমাত্র দর্শকদের কথা বিবেচনা করে বিপিএল কর্তৃপক্ষ টুর্নামেন্টের ম্যাচ সমুহের সময়সূচি পরিবর্তন করেছে। সে যহসেবে গতকাল দিনের প্রথম ম্যাচটা শুরু হয়েছিল দুপুর ২টায়। যদিও আজ থেকে সেটা শুরু হবে বেলা দেড়টায়। এবারের বিপিএলের শুরুর দিকে রানও আসেনি তেমন। বেশ কয়েকটি ম্যাচ হয়েছে একেবারে লো স্কোরিং। ফলে দর্শকরা হতাশ হয়েছে শুরু থেকেই। তবে গতকাল ছিল বড় একটি ম্যাচ। আর সে ম্যাচটিও হয়েছে তেমন উত্তেজনাপূর্ণ। যা টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে দর্শকদের সবচাইতে বড় প্রত্যাশা। সেটা পুরণ হওয়ায় বেশ খুশি দর্শকরা। গতকাল যেথে আসতে শুরু করা দর্শকরা এখন থেকে প্রতিদিনই আসবেন তেমনটাই প্রত্যাশা বিপিএলের আয়োজকদের। দর্শকরাই মাঠের প্রাণ। দর্শকবিহীন ম্যাচ যে কোন হাইভোল্টেজ একটি ম্যাচকেও নিষ্প্রাণ করে তোলে। সেই দৃশ্য বদলে রংপুর-ঢাকার হাইভোল্টেজ ম্যাচের আমেজ পুরোটাই পাওয়া গেল।

x