দক্ষতা ও উন্নয়নের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় চাই বাজেট বাস্তবায়ন

সিআইইউতে সেমিনার

রবিবার , ১৪ জুলাই, ২০১৯ at ৯:৩৬ অপরাহ্ণ
59

যুক্তি, সুপারিশ আর প্রাণবন্ত আলোচনার মধ্য দিয়ে চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটিতে (সিআইইউতে) অনুষ্ঠিত হলো ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের জাতীয় বাজেট নিয়ে পর্যালোচনামূলক সেমিনার ‘কেমন হলো দেশের বাজেট’।

আজ রবিবার (১৪ জুলাই) সকালে নগরীর জামাল খান ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে সিআইইউ বিজনেস স্কুল এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও বাজেট বিষয়ে অভিজ্ঞ ব্যক্তিরা উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানের প্রধান আলোচক ছিলেন বাংলাদেশ হাউজ বিল্ডিং ফাইন্যান্স কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. সেলিম উদ্দিন (এফসিএ, এফসিএমএ)।

তিনি তার বক্তব্যে বাজেটের ইতিবাচক দিকগুলো তুলে ধরে দেশের অগ্রগতি ও উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখার আহ্বান জানান।

বাজেট বাস্তবায়নে এগিয়ে যাওয়ার প্রসঙ্গ তুলে ধরে ড. মো. সেলিম উদ্দিন বলেন, ‘বিশেষ জনগোষ্ঠীর প্রশিক্ষণ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টির জন্য সরকারিভাবে নেয়া সিদ্ধান্তগুলো সত্যিই প্রশংসনীয়। সরকার ট্যাক্স, রেমিট্যান্স, চতুর্থ শিল্প বিপ্লবসহ গুরুত্বপূর্ণ বিষয়গুলোর দিকে বেশি নজর দিয়েছে। তবে আমাদের রাজস্ব সংগ্রহের দিকে অধিক খেয়াল রাখতে হবে।’

২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নয়নের উপরে নিয়ে যেতে চাইলে এ ধরনের বাজেটের সমন্বয় ও ভারসাম্য রক্ষা করা জরুরি বলে মন্তব্য করেন তিনি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিআইইউ’র উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, ‘বাজেটের আকার বাড়বে। ব্যয়ও বাড়বে। তবে খেয়াল রাখতে হবে আর্থসামাজিক খাতের উন্নয়ন যেন সবার আগে হয়।’

টেকসই অর্থনীতির জন্য যুগোপযুগী বাজেট বাস্তবায়নের কোনো বিকল্প নেই বলে বক্তব্যে উল্লেখ করেন তিনি।

সেমিনারে বাজেটের আদ্যোপান্ত নিয়ে উপস্থাপন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের হিসাব বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগি অধ্যাপক ড. ইমন কল্যাণ চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘যদি দুর্নীতি রোধ ও স্বচ্ছতা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয় তবেই এই বাজেট উন্নয়নের ধারক হয়ে কাজ করবে। একইসঙ্গে জনবান্ধব বাজেট হিসেবেও প্রশংসিত হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে সিআইইউ বিজনেস স্কুলের ডিন ড. মোহাম্মদ নাঈম আবদুল্লাহ রাজস্ব আদায়ে করের ভার যেন সাধারণ মানুষের ওপর না পড়ে সেদিকে নজর দেয়ার কথা তুলে ধরেন।

সেমিনারে আলোচক অধ্যাপক ড. মো. সেলিম উদ্দিনের হাতে বিজনেস স্কুলের পক্ষ থেকে ক্রেস্ট তুলে দেয়া হয়।

x