তবুও নেইমারকে ঘিরেই ব্রাজিলের সব পরিকল্পনা

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শুক্রবার , ২২ জুন, ২০১৮ at ৬:০০ পূর্বাহ্ণ
71

ইনজুরি ব্রাজিল তারকা নেইমারের জন্য স্বপ্ন ভঙ্গের সবচাইতে বড় কারণ। রোনালদোকে ঘিরে যেমন পর্তুগালের স্বপ্ন তেমনি মেসিকে ঘিরে আর্জেন্টিনার স্বপ্ন। স্বভাবতই নেইমারকে ঘিরে ব্রাজিলের সব স্বপ্ন আবর্তিত। কিন্তু সেলেসাওদের সে স্বপ্ন হোঁচট খায় বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচেই। আর এখানেও ভিলেনর নাম ইনজুরি। চার বছর আগে ব্রাজিলজুড়ে হাহাকার উঠেছিল নেইমারের জন্য। সেমিফাইনালের আগের ম্যাচে নেইমার ইনজুরিতে পড়ায় স্বাগতিক দর্শকদের সেই হাহাকার এখনো চোখে ভাসে। সাও পাওলোর নিজের বাসায় বিছানায় শুয়ে তিনি দেখেছেন জার্মানির কাছে নিজেদের লজ্জাজনক হার। রাশিয়া বিশ্বকাপের আগে থেকেই পিএসজি সুপার স্টারকে নিয়ে শঙ্কা ছিল। কিন্তু তিনি প্রথম ম্যাচে খেলেছেন। তবে মন ভরাতে পারেনি ভক্তদের। যদিও সুইজারল্যান্ডের বিপক্ষে সে ম্যাচে বেশ কয়েকটি ফাউলের শিকার হতে হয়েছে ব্রাজিলের এই সুপার স্টারকে। তাই প্রথম ম্যাচ শেষে ইনজুরিটা আবার মাথাচাড়া দিয়ে উঠার শংকা জেগেছিল। যদিও শেষ অনুশীলনে ছিলেন নেইমার। ব্রাজিলের দ্বিতীয় ম্যাচের আগে সেন্ট পিটার্সবার্গে দর্শকদের মধ্যে আলোচনাটা তাই নেইমারকে নিয়েই বেশি।

গত ১৭ জুন রোস্তভ এরেনায় সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে নেইমার মাঠে নেমেছিলেন ইনজুরি কাটিয়ে পুরোপুরি প্রস্তুত না হয়েই। গত ফেব্রশুয়ারিতে ইনজুরিতে পড়ার পর ওটাই ছিল নেইমারের প্রথম প্রতিযোগতামূলক ম্যাচ। কিন্তু দলকে জেতাতে পারেননি তিনি। মাঠে নেইমার নিজেকে সেভাবে প্রমাণও করতে পারেননি। মুভমেন্টে মনে হয়েছে সমস্যা নিয়েই মাঠে নেমেছেন। বিশ্বকাপের শুরুতেই ধাক্কা খেল ব্রাজিল। সুইজারল্যান্ডের বিরুদ্ধে এগিয়ে থেকেও পয়েন্ট হারিয়ে শুরু করতে হলো তিতের দলকে। গ্রশুপের অন্য দল সার্বিয়া শীর্ষে রয়েছে প্রথম ম্যাচে কোস্টারিকাকে ১০ গোলে হারিয়ে। আজকের দ্বিতীয় ম্যাচটি তাই অনেক গুরুত্বপূর্ণ পাঁচবারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের জন্য। আজ শুক্রবার সেন্ট পিটার্সবার্গে ব্রাজিলকে জিততে হবে কোস্টারিকার বিরুদ্ধে। পয়েন্ট হারালে নেইমারদের পড়তে হবে সঙ্কটে।

তবে সে পথে হাটতে চাননা ব্রাজিল কোচ। তার লক্ষ্য প্রতিবেশী কোস্টারিকাকে হারিয়ে জয়ের ফেরার। তবে স্বভাবতই ম্যাচের আগে আলোচনায় আসছেন নেইমার। তিনি সুস্থ কিনা? কোস্টারিকার বিপক্ষে খেলবেন কিনা? নানা প্রশ্ন ভাসছে হাওয়ায়। তবুও নেইমারকে ঘিরেই এখনো তাদের সব পরিকল্পনা। এই বিশ্বকাপে বড় তারকাদের অন্যতম ব্রাজিলের নেইমার, আর্জেন্টিনার মেসি, পর্তুগালের ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং মিশরের মোহামেদ সালাহ। দুই ম্যাচ হেরে গ্রশুপ পর্ব থেকে বিদায় নিয়ে ফেলেছে মোহামেদ সালাহর মিশর। মেসির আর্জেন্টিনা প্রথম ম্যাচ ড্র করেছে। মেসি পেনাল্টি মিস করায় এখন ঘরে ও বিদেশে সমর্থকদের সমালোচনার মুখে বার্সেলোনার এ সুপারস্টার।

একমাত্র রোনালদোই খেলছেন রোনালদোর মতো। প্রথম ম্যাচে হ্যাটট্রিক, দ্বিতীয় ম্যাচে ১ গোল। পর্তুগালের জয়ের নায়ক এখন গোলদাতাদেরও শীর্ষে। তাই নেইমারের দিকে এখন তাকিয়ে তার অগণিত ভক্তরা। অবশ্য ভক্তদের জন্য খুশির খবর হচ্ছে সোচিতে অনুশীলনের পর নেইমার নিজের উন্নতির কথা জানিয়েছেন। ভক্তদের জন্য এটা দারুণ খবর। আর ব্রাজিলের জন্য স্বস্তির। সেন্ট পিটার্সবার্গের দর্শকরা তো আশা করেই আছে, নেইমারের পা পড়বে তাদের মাঠে। নেইমারের যাদুময়ী ফুটবল দেখবেন গ্যালারিতে বসে। দর্শক কিংবা ভক্ত যাদের কথাই বলা হোকনা কেন, সবার চাওয়া নেইমার এ ম্যাচে খেলুক। কিন্তু তাদের সবাই চাইতে বেশি করে নেইমারকে খেলাতে চাইছে ব্রাজিল দল। কারণ প্রথম ম্যাচে পয়েন্ট হারিয়ে তারা যে মহা বিপদে। আর এটা বিশ্বকাপ এখানে যে কোন সময় পা পিছলে যেতে পারে। আর সেটা বেশ ভালই টের পাচ্ছেন দলকে দুর্দান্ত ফর্মে রাখা কোচ তিতে। প্রতিবেশী দেশ কোস্টারিকাকে হারিয়ে জয়ের সুবাশ নিতে চায় ব্রাজিল। আর সে পথে ব্রাজিলের সবচাইতে বড় বাজির ঘোড়াটির নাম নেইমার। তাকে নিয়ে যত গুঞ্জন থাকুক না কেন কোস্টারিকাকে হারিয়ে বিশ্বকাপের প্রথম জয় তুলে নিতে সেই নেইমারকে ঘিরেই পরিকল্পনার সব ছক একে ফেলেছেন ব্রাজিল কোচ তিতে। এখন মাঠে সেটার প্রতিফলন ঘটাতে পারলেই হলো।

x