তফসিল ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল

আজাদী প্রতিবেদন

শুক্রবার , ৯ নভেম্বর, ২০১৮ at ৬:২৭ পূর্বাহ্ণ
83

২৩ ডিসেম্বর একাদশ সংসদ নির্বাচনের তারিখ ঘোষণার পরপরই চট্টগ্রামে ভোট উৎসবের আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে। চট্টগ্রাম মহানগরীসহ জেলার ১৬ সংসদীয় আসনে এই আমেজ ছড়িয়ে পড়ে। তফসিল ঘোষণার পরপরই মহানগরীতে আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগসহ বিভিন্ন দলের সম্ভাব্য প্রার্থীদের কর্মী-সমর্থকরা আনন্দ মিছিল বের করে। জেলার বিভিন্ন উপজেলায়ও তফসিল ঘোষণার পর আনন্দ মিছিল হয়েছে। মহানগর আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি খোরশেদ আলম সুজন বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বাঙালি জাতিসত্তার অস্তিত্ব রক্ষার একটি কঠিন চ্যালেঞ্জ। এই চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় মহানগর আওয়ামী লীগ ইস্পাত কঠিন ঐক্য নিয়ে রাজপথে আছেই, থাকবে। নির্বাচনী তফসিল ঘোষণার সাথে সাথে দলের সকল নেতাকর্মীদের মধ্যে আনন্দ-উচ্ছ্বাস ছড়িয়ে পড়ে। এই আনন্দ নির্বাচন পর্যন্ত থাকবে নেতাদের মধ্যে।
অ্যাডভোকেট এ এইচ এম জিয়াউদ্দিন আজাদীকে জানান, নির্বাচনী আমেজ শুরু হয়েছে অনেক আগে থেকেই। আওয়ামী লীগের প্রত্যেক নেতাকর্মীর মধ্যে উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে। নেতাকর্মীরা সরকারের উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে জনগণের কাছে যাচ্ছেন। সিইসি তফসিল ঘোষণার সাথে সাথে সেই উৎসাহ এবং আমেজ সর্বত্র ছড়িয়ে পড়ে। শুধু বাঁশখালীতে নয় পুরো চট্টগ্রামের প্রত্যন্ত অঞ্চলে রাতের মধ্যেই নির্বাচনী আমেজ ছড়িয়ে পড়েছে।
তফসিল ঘোষণায় নির্বাচনী পরিবেশ উৎসব মুখরতা ফিরে এসেছে বলে জানান আওয়ামী লীগ নেতা আবদুল কৈয়ুম চৌধুরী। তিনি বলেন, সব জায়গায় উৎসব-উৎসব ভাব বিরাজ করছে। নেতাকর্মীদের মধ্যে প্রাণচাঞ্চল্যতা ফিরে এসেছে। এই আনন্দকে ধরে রাখতে হবে নির্বাচন পর্যন্ত।
তফসিল ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়েছে মহানগর আওয়ামী লীগ। গতকাল সন্ধ্যায় নির্বাচনী তফসীল ঘোষণার পরবর্তী সময়ে তাৎক্ষণিক একটি আনন্দ মিছিল ও সমাবেশে এ প্রত্যয় ঘোষণা করেন মহানগর আওয়ামী লীগ। তাৎক্ষণিক মিছিলটি মহানগর আওয়ামী লীগের দারুল ফজল মার্কেট কার্যালয় হতে শুরু হয়ে নিউ মার্কেট চত্বর ঘুরে নতুন স্টেশন হয়ে পুনরায় দলীয় কার্যালয়ের সামনে সমাপ্ত হয়। আনন্দ মিছিলে উপস্থিত ছিলেন খোরশেদ আলম সুজন, শফিকুল ইসলাম ফারুক, চন্দন ধর, মশিউর রহমান চৌধুরী, আবুল মনসুর, পেয়ার মোহাম্মদ, জাগির উদ্দিন সর্দার, আবুল হাশেম
বাবুল, ফজলে আজিজ বাবুল, সিরাজ উদ দৌলা সিরু, হাসান রাজু, খলিলুর রহমান নাহিদ, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের আশিকুন নবী ও মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি ইমরান আহম্মেদ ইমু সহ আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের বিভিন্ন নেতাকর্মী।
৬নং পূর্ব ষোলশহর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের উদ্যেগে সমাবেশ ও আনন্দ মিছিল অনুষ্ঠিত হয়। সভাপতিত্ব করেন সামশুল আলম। সভা পরিচালনা করেন কাউন্সিলর এম আশরাফুল আলম। সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন এম রেজাউল করিম চৌধুরী, বিশেষ অতিথি ছিলেন নোমান আল মাহামুদ, বক্তব্য দেন-মনজুর হোসাইন, মো. ইসা, আশরাফুল আলম, মো. ইসহাক, হুমায়ুন কবির, আবুল কালাম, মো. হোসেন, মাহাবুল আলম, মো. আলমগীর, মিনহাজুল আবেদন সায়েম, সাইফুউদ্দিন, শহিদুল কাওসার, রুবায়েত হোসেন, মো. নঈম উদ্দিন, এস এম জেড খসরু, মঞ্জুরুল আলম, ফারুক আহমদ, ফয়সাল বাপ্পী, আবু সাইদ সুমন, ইমতিয়াজ উদ্দিন লিটন, মো. সালাউদ্দিন, জাবেদুল ইসলাম প্রমুখ।
তফসিল ঘোষণাকে স্বাগত জানিয়ে আনন্দ মিছিল বের করে দক্ষিণ জেলা স্বেচছাসেবক লীগ। সাতকানিয়ার পৌর মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের ও চৌধুরী মোহাম্মদ গালিবের নেতৃত্বে মিছিলে অংশ নেন-এম এ হাশেম, মোহাম্মদ সেলিম হোসেন, নুরুল আবছার তালুকদার, হারুনর রশিদ চৌধুরী, আবু বক্কর, আবু সাদাত মোহাম্মদ সায়েম, মোহাম্মদ ইউসুফ, আতাউল করিম, মোঃ ইউছুফ, আবদুল মালেক খান, সোহেল মোহাম্মদ মন্‌জুর, এস এম কৈয়ম উদ্দীন, ইমরান খান, আবু তাহের, জাফর ইকবাল তালুকদার, অ্যাড. রোকনুজ্জামান মুন্না, সনাতন চক্রবর্তী বিজয়, কায়েস সরোয়ার সুমন, আবু সাদাত প্রমুখ।

x