‘ডিটেনশন ক্যাম্প’ বন্ধ করতে চীনের প্রতি আহ্বান তুরস্কের

সোমবার , ১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ at ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ
14

আটকাবস্থায় সংখ্যালঘু উইঘুর জনগোষ্ঠীর প্রখ্যাত এক সুরকারের মৃত্যুর প্রতিবেদনের পর চীনকে তাদের ডিটেনশন ক্যাম্পগুলো বন্ধ করার আহ্বান জানিয়েছে তুরস্ক। জানা গেছে, চীনের শিনজিয়াং অঞ্চলে সুরকার আব্দুরেহিম হেয়িত আট বছরের কারাদণ্ড ভোগ করছিলেন বলে ধারণা করা হয়। অঞ্চলটিতে প্রায় ১০ লাখ উইঘুরকে আটক করে রাখা হয়েছে বলে প্রকাশিত বিভিন্ন প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। শনিবার এক বিবৃতিতে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, উইঘুররা কনসনট্রেইশন ক্যাম্পগুলোতে নির্যাতিত হচ্ছে। অপরদিকে ওই স্থাপনাগুলোকে পুনঃশিক্ষা ক্যাম্প বলে দাবি করেছে চীন। বিবৃতিতে তুরস্কের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র হামি আকসোদ বলেছেন, এটা আর গোপন নেই যে ১০ লাখেরও বেশি উইঘুর তুর্কি বাছবিচারহীনভাবে গ্রেপ্তার হয়ে নির্যাতন ও রাজনৈতিক মগজ-ধোলাইয়ের শিকার হচ্ছেন। যারা বাইরে আছেন তারা প্রবল চাপের মধ্যে আছেন বলে বিবৃতিতে অভিযোগ করেছেন তিনি। উইঘুররা চীনের উত্তরপশ্চিমাঞ্চলীয় শিনজিয়াং অঞ্চলের তুর্কিভাষী মুসলিম জনগোষ্ঠী।
আকসোদ বলেছেন, একুশ শতাব্দিতে কনসনট্রেইশন ক্যাম্পের পুনঃপ্রবর্তন এবং উইঘুর তুর্কিদের বিরুদ্ধে চীনা কর্তৃপক্ষগুলোর পদ্ধতিগত আত্তীকরণ নীতি মানবতার পক্ষে অত্যন্ত বিব্রতকর। তিনি আরও বলেছেন, হেয়িতের মৃত্যুতে শিনজিয়াংয়ে গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘনের বিষয়ে তুরস্কের জনগণের প্রতিক্রিয়া আরও তীব্র হয়েছে। সেখানকার শোচনীয় মানবিক পরিস্থিতির অবসান ঘটানোর জন্য কার্যকরী পদক্ষেপ নেওয়ার জন্য তিনি জাতিসংঘ মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেসের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

x