টেকনাফে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে ২ জনের মৃত্যু

৩ বসতঘর ভস্মীভূত, দগ্ধ আরো ৬

টেকনাফ প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার , ১০ মে, ২০১৮ at ৩:২৩ পূর্বাহ্ণ
67

টেকনাফে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে দগ্ধ হয়ে শিশুসহ দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতরা হলেন বৃদ্ধা এলেনা খাতুন (৯০) ও শিশু রুমা আক্তার ()। গতকাল বুধবার ভোরে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়ন কাঞ্জর পাড়ায় সিলিন্ডার বিস্ফোরণে বসতঘরে অগ্নিকাণ্ডের এঘটনা ঘটে। এ সময় আগুনে আরো ৬ জন দগ্ধ ও তিনটি বসতঘর পুড়ে গেছে। এঘটনায় দগ্ধ সাতজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। তারা হলেন খাইরুল বশর (৩৫), বদিউজ্জামান (৩০), ফাতেমা খাতুন (২৭), বুসরা আক্তার (১২), রুমা আক্তার (), রুনা আক্তার (), সুমাইয়া আক্তার (১০)। সেখানে শিশু রুমা আক্তার চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যায়। আগুনে ঘটনাস্থলে দগ্ধ হয়ে মারা যান এলেনা খাতুন।

ফায়ার সার্ভিস ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল ভোর ৫টায় উপজেলার কাঞ্জর পাড়া গ্রামে আব্দু শুক্কুর (৬০) এর বাড়িতে রান্নার কাজ করার সময় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়ে বাড়িতে আগুন লাগে। আগুন দ্রুত খাইরুল বশর (৩৫) ও বদিউজ্জামানের (৩০) বাড়িতেও ছড়িয়ে পড়ে। আগুন মুহূর্তের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ায় বাড়িতে ঘুমিয়ে থাকা আব্দু শুক্কুরের শাশুড়ি এলেনা খাতুন (৯০) পুড়ে ঘটনাস্থলে মারা যান। স্থানীয় লোকজন ও ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নিয়ন্ত্রনের চেষ্টা করলেও বসতঘরের প্রয়োজনীয় আসবাবপত্র ও মালামাল রক্ষা করতে পারেনি। ফলে তিনটি বসতঘর ভস্মীভূত হয়। আগুনে দগ্ধ হন আরো ৭ জন। এতে প্রায় ২০ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়।

টেকনাফ উপজেলার নির্বাহী অফিসার মো. রবিউল হাসান ক্ষতিগ্রস্তদের খোঁজ খবর নেন এবং ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে প্রতি পরিবারকে ১ হাজার টাকা করে দেন। তিনি বলেন, স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল গাফ্‌ফারের কাছ থেকে হোয়াইক্যং কাঞ্জর পাড়ায় বসতঘরে আগুন লাগার খবর পেয়ে দ্রুত আমি ফায়ার সার্ভিস সদস্যদের ঘটনাস্থলে পাঠাই। ক্ষতিগ্রস্ত বসতঘরগুলো পরিদর্শন করেছি। ক্ষতিগ্রস্তদের পুনর্বাসনের জন্য কক্সবাজার ডিসি স্যারকে অবহিত করেছি। তিনি প্রতি পরিবারকে ২০ হাজার টাকা করে অনুদান দেওয়ার ঘোষণা দেন।

x