টানা দুই জয়ে সেরা আটে চট্টগ্রাম আবাহনী

ক্রীড়া প্রতিবেদক

শুক্রবার , ৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ at ৫:১০ পূর্বাহ্ণ
5

রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটিকে হারিয়ে স্বাধীনতা কাপের কোয়ার্টার-ফাইনালে উঠেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে ১-০ গোলে জেতে চট্টগ্রাম আবাহনী। নিজেদের প্রথম ম্যাচে প্রতিযোগিতার নবাগত দল নোফেল স্পোর্টিংকে ৩-০ গোলে হারিয়েছিল তারা। দুই জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে সেরা আটে উঠেছে চট্টগ্রাম আবাহনী। দুই ম্যাচে একটি করে হার ও ড্রয়ে ১ পয়েন্ট রহমতগঞ্জের। তৃতীয় মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত আগের ম্যাচে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করে আসা রহমতগঞ্জ। ডি-বঙের ভেতর থেকে মিডফিল্ডার রকিবুল ইসলামের নেওয়া শট ডানদিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে ফেরান গোলরক্ষক মোহাম্মদ নেহাল। প্রথমার্ধের ২০তম মিনিটে সেরা সুযোগটি নষ্ট হয় রহমতগঞ্জের। সতীর্থের ব্যাক পাসে মিডফিল্ডার ফয়সাল আহমেদের শট গোলরক্ষককে ফাঁকি দিয়ে ক্রস বারে লেগে ফিরে। ৩৬তম মিনিটে কৌশিক বড়ুয়ার কর্নারে হেডে জাল খুঁজে নিয়ে চট্টগ্রাম আবাহনীকে এগিয়ে নেন গাম্বিয়ার ফরোয়ার্ড মোমোদু বাহ। দুই ম্যাচে এটি তার তৃতীয় গোল। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে সিও জুনাপিওর ক্রসে সাব্বির আহমেদের হেড নেহালের গ্লাভসে জমে গেলে হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে রহমতগঞ্জ।
এদিকে স্বাধীনতা কাপে সময়টা মোটেও ভালো যাচ্ছে না মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের। প্রথম ম্যাচে ড্রয়ের পর দ্বিতীয় ম্যাচে হেরেছে প্রতিযোগিতার তিনবারের চ্যাম্পিয়ন দলটি। বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার ‘বি’ গ্রুপের ম্যাচে নবাগত নোফেল স্পোর্টিং ক্লাবের কাছে ২-০ গোলে হারে মোহামেডান। প্রথম ম্যাচে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস অ্যান্ড সোসাইটির সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছিল তারা। দুই ম্যাচে ১ পয়েন্ট মোহামেডানের। চট্টগ্রাম আবাহনীর কাছে ৩-০ গোলে হেরে স্বাধীনতা কাপ শুরু করে নোফেল ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে।২৮তম মিনিটে আশরাফুল ইসলামের গোলে এগিয়ে যায় নোফেল। গিনির ফরোয়ার্ড ইসমাইল বাঙ্‌গুরার বাড়িয়ে দেওয়া বল প্লেসিং শটে ঠিকানায় পৌঁছে দেন এই মিডফিল্ডার। দ্বিতীয়ার্ধে সমতায় ফিরতে মরিয়া মোহামেডান আক্রমণের ধার বাড়ায়। কিন্তু ৭৪ মিনিটে ডিফেন্ডার মোহাম্মদ লিংকনের জোরালো শট বারের ওপর দিয়ে যায়। ছয় মিনিট পর গাম্বিয়ার ফরোয়ার্ড ল্যান্ডিং ডারবোয়ের ফ্রি কিক ফিস্ট করে ফেরান গোলরক্ষক। ৮৫ মিনিটে বদলি মিডফিল্ডার পাশবন মোল্লার শট ক্রসবারে লেগে ফিরলে মোহামেডানের হতাশা আরও বাড়ে। দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে নোফেলের মিডফিল্ডার জমির উদ্দিনের শট ক্রসবারে লাগে। শেষ দিকে ব্যবধান দ্বিগুণ করে নেয় নবাগত দলটি। কর্নারের শেষ সুযোগটি কাজে লাগাতে প্রতিপক্ষের অর্ধে চলে আসেন গোলরক্ষক সায়েদ ইশতিয়াক। মোহামেডানের কর্নার ফিরিয়ে গোলরক্ষক আপেল মাহমুদ বল বাড়ান মোহাম্মদ রোমানকে; ফাঁকা পোস্টে অনায়াসে লক্ষ্যভেদ করেন এই মিডফিল্ডার।

x