জাইকার অর্থায়নে নগরীতে ৬৪০ কোটি টাকার কাজ চলছে

সিডিসিসি কমিটির সভা : নাগরিক দুর্ভোগ দ্রুত নিরসনে ওয়াসার সহযোগিতা প্রত্যাশা মেয়রের

আজাদী প্রতিবেদন

মঙ্গলবার , ১২ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৫:০৮ পূর্বাহ্ণ
261

জাইকার অর্থায়নে নগরীতে ৩৪টি উন্নয়ন প্রকল্পের বিপরীতে ৬৪০ কোটি টাকা কাজ চলমান রয়েছে বলে জানান চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন। এসব উন্নয়ন কাজ শেষে নগরীতে দৃশ্যমান পরিবর্তন আসবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নগর উন্নয়ন সমন্বয়কল্পে জাইকার গাইডলাইন অনুযায়ী গঠিত ‘সিডিসিসি’ কমিটির সভায় এসব তথ্য জানান মেয়র। গতকাল সোমবার নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় মেয়র বলেন, চলমান উন্নয়ন প্রকল্পের মধ্যে প্রথম ব্যাচে ১৭টি প্রকল্পের অধীনে প্রায় ২০০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ এবং দ্বিতীয় ব্যাচে ১৭টি প্রকল্পের অধীনে প্রায় ৪৪০ কোটি টাকার উন্নয়ন কাজ চলমান আছে। নগরীর উন্নয়নে এডিপিভুক্ত প্রকল্প ছাড়াও বিএমডিএফ এবং অন্যান্য সংস্থা সহযোগিতা করে যাচ্ছে।

চট্টগ্রাম ওয়াসার পাইপ লাইন স্থাপন কাজের কারণে মুরাদপুর থেকে অক্সিজেন সড়ক এবং ফ্লাইওভারের র‌্যাম নির্মাণ ও ওয়াসার পাইপ লাইন স্থাপন কাজের কারণে আরকান সড়কে নাগরিক দুর্ভোগ নিরসন করতে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনকে সময় ক্ষেপন করতে হচ্ছে মন্তব্য করে সভায় মেয়র বলেন, ঐকান্তিক ইচ্ছা, আগ্রহ এবং আর্থিক সক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও এ দুইটি সড়ক পুরোপুরি সংস্কার করা যাচ্ছে না। তিনি নাগরিক দুর্ভোগ দ্রুত নিরসনে চট্টগ্রাম ওয়াসার সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন।

তিনি বলেন, সমন্বিত কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নের মধ্য দিয়ে নাগরিক চাহিদা পূরণ করা সম্ভব হবে। চলমান অর্থ বছর সহ আগামী দুই অর্থ বছর মিলে নগরীর কাঁচা রাস্তা ও ব্রিক সলিং রাস্তাসমূহ কার্পেটিং রাস্তায় উন্নীত করা হবে। এ লক্ষ্যে ৪৫৪ কোটি টাকার একটি প্রকল্প সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ে প্রেরণ করা হয়েছে। মেয়র তার প্রতিশ্রুত সময়ের মধ্যে আলোকিত, পরিবেশ বান্ধব ও উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা গড়ে তুলে চট্টগ্রাম নগরীকে বাসপোযোগী উন্নত নগরী হিসেবে পরিগণিত করা সম্ভব হবে বলেও মন্তব্য করেন।

ভারপ্রাপ্ত প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ড. মুহাম্মদ মুস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় সভায় চট্টগ্রাম ওয়াসার ব্যবস্থাপনা পরিচালক প্রকৌশলী এ কে এম ফজলুল্লাহ, বিটিসিএল’র বিভাগী প্রকৌশলী সমিত চাকমা, চট্টগ্রাম বন্দর কর্তৃপক্ষের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. সাইফুল হাসান চৌধুরী, নারী ঐক্য বাংলাদেশের যুগ্ম সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস, কর্ণফুলী গ্যাস ডিস্ট্রিভিশন কো. লি. এর ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী আবদুল হালিম, অতিরিক্ত সহকারী পুলিশ কমিশনার সচিন চাকমা, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের সহকারী প্রকৌশলী মো. জাহাঙ্গীর আলম, কাউন্সিলর জহর লাল হাজারী, হাসান মুরাদ বিপ্লব, নাজমুল হক ডিউক, ছালেহ আহমদ চৌধুরী, মো. সলিম উল্লাহ বাচ্চু, মো. জহুরুল আলম জসিম, এম আশরাফুল আলম, এইচ এম সোহেল, শৈবাল দাশ সুমন, চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী আনোয়ার হোছাইন, মো. আবু ছালেহ, মাহফুজুল হক, মনিরুল হুদা, প্রধান স্থপতি এ কে এম রেজাউল করিম, উপ সচিব আশেক রসুল চৌধুরী টিপু, জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবদুর রহিম, জাইকার প্রকৌশলী তুষার আহমেদ, সনজিত কুমার দাশ, মইনুল হোসেন আলী চৌধুরী, মো. চুন্নু হোসেন, আমিনুর রহমান, মো. ওবায়দুল রহমান, আকিব রেজা আবির, রবি মং মারমাসহ সংশ্লিষ্টরা উপস্থিত ছিলেন।

x