চৈত্রের দুপুরে আইনজীবীদের চলচ্চিত্র উৎসব

আরিকা মাইশা

বৃহস্পতিবার , ২৬ এপ্রিল, ২০১৮ at ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ
57

চৈত্র্যের সকালে রোদের মিটি মিটি হাসিতে মুখর চারপাশ। এই সকালে অসংখ্য মানুষের আনাগোনায় ভরে উঠেছে চট্টগ্রামে আদালত আঙ্গিণা। সেই কর্মব্যস্তময় আদালতের মাঝেই চলচ্চিত্র প্রদর্শনের মাধ্যমে বিনোদনের হাওয়া ছড়াতে চমৎকার উদ্যোগ নেয় বাংলাদেশ লইয়ার্স কমিউনিটি। চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির একশত পঁচিশ বছর পূর্তি উপলক্ষে ১১ এপ্রিল বেলা ২.৩০ মিনিটে তপ্ত রোদের মধ্য দুপুরে বাংলাদেশ লইয়ার্স কমিউনিটি এর উদ্যোগে চট্টগ্রাম জেলা আইজীবী সমিতির অডিটোরিয়ামে আয়োজন করা হয় চলচ্চিত্র উৎসবের। বেলুন উড়ানোর মধ্য দিয়ে উৎসবের উদ্বোধন করেন আমন্ত্রিত অতিথিরা। উদ্বোধন অনুষ্ঠানের পর শুরুতেই ছিল কথামালা। কথামালায় প্রধান অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দীন চৌধুরী, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সদস্য মোহাম্মদ ইব্রাহিম হোসেন চৌধুরী ও বাংলাদেশ লইয়ার্স কমিউনিটির আহ্বায়ক এডভোকেট মোহাম্মদ মঈনুদ্দীন। কথামালায় সঞ্চালনা করেন মোহাম্মদ বরকতউল্লাহ বুলু। কথামালার পর মিলনায়তনে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মাধ্যমে শুরু হয় মূল উৎসব। শুরুতেই বাংলাদেশ লইয়ার্স কমিউনিটির সদস্য সচিব এডভোকেট বোরহান উদ্দীন শাহ চলচ্চিত্র প্রদর্শনী উৎসবের উদ্দেশ্য ও প্রাসঙ্গিকতা তুলে ধরেন। তিনি বলেন, আইনজীবী ও আইনজীবী পরিবারের সদস্যদের বিনোদনের লক্ষে সকলে মিলে একসাথে বড় পর্দায় সামাজিক চলচ্চিত্র দেখানোর উদ্দেশ্য নিয়ে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ লইয়ার্স কমিউনিটি আয়োজন করেছে চলচ্চিত্র উৎসবের। তাঁর শুভেচ্ছা বক্তব্যের পর চলচ্চিত্র প্রদর্শনের আগে ‘দুই জীবন’ চলচ্চিত্রের গান ‘আমি একদিন তোমায় না দেখিলেপরান আমার রয়না পরাণে’ গাইলেন মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ চৌধুরী নয়ন। যা দর্শকদের বাড়তি আনন্দ দেয়। এরপর শুরু হয় শিহাব শাহিনের জনপ্রিয় চলচ্চিত্র ‘ছুঁয়ে দিলে মন’। এর পর পরই প্রদর্শন করা হয় সুভাষ কাপুর পরিচালিত ছবি ‘জলি এল এল বি টু’। চলচ্চিত্রটিতে বলিউডের খিলাড়িখ্যাত অভিনেতা অক্ষয় কুমারের দূদার্ন্ত অভিনয় ছবির মাত্রাই পাল্টে দেয়। যা দর্শকদের হৃদয় ছুঁয়ে গেছে। সবশেষে শিক্ষানবিশ আইনজীবী জুলিয়েট জোন টসকানোর রচনা ও পরিচালিত স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র ‘সাইবার ব্ল্যাকহোল’। ‘সাইবার ব্ল্যাকহোল’ চলচ্চিত্রটি প্রদর্শনীর মাধ্যমে শেষ হয় উৎসব মুখর এই অনুষ্ঠানের। কিন্তু এর রেশ ছড়িয়ে পড়ে আইনজীবী ও গোটা আদালত প্রাঙ্গণে।

x