চন্দ্রদর্শন

স্বপন দত্ত

শুক্রবার , ৭ ডিসেম্বর, ২০১৮ at ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ
8

‘কী চমৎকার এক চাঁদ উঠেছে’ এই বলে
ছুটছিলো সবাই
চাঁদের হাটে চাঁদ দেখবে বলে।

আমি দেখলাম সূর্য ওঠার রঙের ছটা
তোমার দখিনা জানালায়
সলজ্জ লালটিপ সিঁদুরের, হাসিতে জ্বলজ্বল।

অপসৃত গ্রহণের ছায়া, জলসত্র খুলেছো উদার,
ভেতরে ভেতরে অদৃশ্য তাঁতের এক টানা ও পোড়েন-এ
বোনা হচ্ছে ভবিষ্যতের দ্রৌপদীর শাড়ি।

আমি দেখলাম,
খাতা-কলম আর রঙ-তুলি-ক্যানভাস নিয়ে
ছুটেছে উদগ্রীব মানুষ।
কারো হাতে
টেলিলেন্সে বাক্‌সো-বন্দী খাঁচা।
এবার রচিত হবে অবিস্মরণীয় কবিতা-মন্ত্র কিছু
এবার রচিত হবে জীবন-তৃষ্ণার কিছু মায়াবী ছবিও।

বিচারক তাকালেন,
ভালোবাসার আঙুর-লতায় ফুল ফোটানোর
গবেষণা পত্রে
গভীর নিরীক্ষা শেষে আমারে দিকে।

তাঁর চশমার দুই চক্রের ভেতর দিয়ে দু’টো তীর
বিদ্ধ করলো আমাদের ফলবান আপেল বৃক্ষকে।
বিভ্রান্ত ঈশ্বরের মতো অত:পর তিনি আমাদের
নির্বাসন দিলেন মাটির পৃথিবীতে।
এসো, আমরা আবার আগুন জ্বালি
আমাদের তাঁবুর সামনে,
আর, ওরা সকলে চাঁদ দেখতে থাকুক
সেই আগুনের আলোয় বনের অন্ধকারে।

x