চট্টলা এক্সপ্রেসে ডাকাতের হানা

যাত্রীদের জিম্মি করে হামলা, আহত ৫, গ্রেপ্তার ৭

সীতাকুণ্ড প্রতিনিধি

বৃহস্পতিবার , ১৩ জুন, ২০১৯ at ৪:৪৩ পূর্বাহ্ণ
633

ঢাকা থেকে চট্টগ্রাম ছেড়ে আসা ‘চট্টলা এক্সপ্রেস’ ট্রেন ফেনী এলাকায় ডাকাতের কবলে পড়েছে। গতকাল বুধবার রাত ৮টার দিকে ফেনীর ফাজিলপুরের আগে ট্রেনের ছাদে যাত্রীদের জিম্মি করে ডাকাতদল হামলা চালিয়ে লুটপাট করে। ডাকাত দলের হামলায় ৫ যাত্রী আহত হয়েছেন। এদের সীতাকুণ্ড ও চট্টগ্রাম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
খবর পেয়ে চট্টগ্রামের জিআরপি থানা পুলিশ সীতাকুণ্ড থানাকে খবর দেয় এবং সীতাকুণ্ড স্টেশনে অবস্থান নিতে বলে। সীতাকুণ্ড স্টেশনে ট্রেনটি আসার সাথে সাথে চারদিকে ঘেরাও করে পুরো ট্রেনে তল্লাশি চালিয়ে সন্দেহভাজন ৭ জনকে আটক করা হয়েছে বলে জানান চট্টগ্রামের জিআরপি থানার ওসি মো. মোস্তাফিজ। একই সাথে ডাকাতের কবলে পড়া ১২ ভুক্তভোগিকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওসি মো. মোস্তাফিজ জানান, সাড়ে ৭টায় ফেনী থেকে বেশ কয়েকজন যাত্রী ট্রেনের ছাদে উঠেছে। এর কিছুক্ষণ পর ডাকাতদল অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে হামলা করে। সাথে সাথে আমরা সীতাকুণ্ড থানাকে বিষয়টি জানাই। সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ আমাদেরকে সহযোগিতা করেছে। তারা ট্রেনটি সীতাকুণ্ড স্টেশনে থামিয়ে তল্লাশি করে ৬/৭জনকে আটক করেছে। ভুক্তভোগী যাত্রীরা জানান, রাত আটটার দিকে একদল দুর্বৃত্ত ট্রেনের প্রথম শ্রেণির বগিতে হামলা চালায়। তারা ওই বগির প্রতিটি কেবিনে থাকা যাত্রীদের ভয় দেখিয়ে বেঁধে ফেলে। যাত্রীদের সবার মুখে স্কচটেপ পেঁচিয়ে দেয়। যাত্রীদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ডাকাতরা ৭টি মুঠোফোন, নগদ প্রায় ৩০ হাজার টাকা, একটি নাইকন ক্যামেরাসহ অন্যান্য মালামাল ছিনিয়ে নেয়। একইভাবে আরো কয়েকটি বগিতে তারা হানা দেয়। তারা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে বিভিন্ন মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে নেয়। এসময় ডাকাতের ছুরির আঘাতে ৫ যাত্রী আহত হওয়ারও খবর পাওয়া গেছে।
ট্রেনের যাত্রী মনির হোসেন, হাফিজ মিয়া ও রাসেল খন্দকারের জানান, দুর্বৃত্তরা যাত্রীবেশে ছিল। তারা কেবিনের দরজা খুলতে বলে। দরজা খুলতেই অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে সবাইকে বেঁধে ফেলে তারা। এসময় যাত্রীদের মধ্যে আতংক ছড়িয়ে পড়ে। নারী ও শিশুরা কান্নাকাটি করতে থাকেন। সীতাকুণ্ড রেলওয়ে থানার এসআই আকবর হোসেন জানান, চট্টলা এক্সপ্রেসটি ফেনী থেকে চট্টগ্রামে থামবে। এর মাঝে কোন যাত্রা বিরতি নেই। এরিই মধ্যে কয়েকজন কয়েকজন বখাটে যুবক অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে মোবাইল, নগদ টাকাসহ ছিনিয়ে নেয়। তাদের ছুরিকাঘাতে ৫ জন যাত্রী আহত হয়। আহতদের মধ্যে একজনকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে।
তিনি জানান, লাকসাম রেলওয়ে থানার ওসির মাধ্যমে খবর পেয়ে ট্রেনটি সীতাকুণ্ড স্টেশনে থামানো হয়। সীতাকুণ্ড থানা পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে আমরা ডাকাতদের আটকের জন্য ট্রেনে তল্লাশি চালায়। এ সময় ওই ট্রেন থেকে ১২ জন ডাকাতের কবলে পড়া ভুক্তভোগিকে উদ্ধার করা হয়েছে।

x