চট্টগ্রাম থেকে প্রতিদিন ২০ হাজার যাত্রী বহন করবে রেল

আজাদী প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার , ১৬ মে, ২০১৯ at ৩:১২ পূর্বাহ্ণ
399

এবারের ঈদে বাংলাদেশ রেলওয়ে প্রতিদিন প্রায় দুই লাখ ৯০ হাজার যাত্রী বহন করবে। চট্টগ্রাম থেকে প্রতিদিন অতিরিক্ত কোচ এবং স্পেশাল সার্ভিসে ২০ হাজারের মতো যাত্রী পরিবহন করবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। ঈদের আগে ২২ মে থেকে প্রতিদিন ৯৩টি আন্তঃনগর ট্রেনের ৭০ হাজারের বেশি অগ্রিম টিকেট বিক্রি হবে; যা চলবে ২৬ মে পর্যন্ত। রেলের ঈদ যাত্রার প্রস্তুতি নিয়ে গতকাল বুধবার ঢাকায় রেল ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান রেলপথমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন।
তিনি বলেন, ৫ জুন রোজার ঈদের সম্ভাব্য দিন ধরে তারা ২২ মে থেকে ২৬ মে পর্যন্ত টিকেট বিক্রির সময়সূচি ঠিক করেছে। ২২ মে বিক্রি হবে ৩১ মের ট্রেনের টিকেট। এভাবে ২৩ মে বিক্রি হবে ১ জুনের, ২৪ মে বিক্রি হবে ২ জুনের, ২৫ মে বিক্রি হবে ৩ জুনের, এবং ২৬ মে বিক্রি হবে ৪ জুনের ট্রেনের টিকেট। কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ছাড়াও ফুলবাড়িয়া পুরাতন রেলভবন, বনানী রেলওয়ে স্টেশন, বিমানবন্দর রেলওয়ে স্টেশন এবং তেজগাঁও রেলওয়ে স্টেশন থেকে টিকেট বিক্রি হবে। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত এসব স্টেশন থেকে টিকেট বিক্রি করা হবে।
রেলমন্ত্রী বলেন, প্রতিদিন ঢাকা থেকে প্রায় ২৭ হাজার অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে। এর অর্ধেক বিক্রি হবে কাউন্টারে, বাকি টিকিট পাওয়া যাবে অনলাইনে। বর্তমানে ৯২টি আন্তঃনগর ট্রেন চলাচল করছে। ঈদের আগে আরেকটি ট্রেন চালু হবে। সব মিলিয়ে ঈদের আগে ৭২ হাজারের বেশি টিকেট বিক্রি হবে। আর বিশেষ ট্রেন মিলিয়ে টিকেটের সংখ্যা ছাড়াবে আশি হাজার। এবার ঈদের আগে প্রতিদিন সবমিলিয়ে প্রায় দুই লাখ ৯০ হাজার যাত্রী বহনের পরিকল্পনা সাজিয়েছে রেলওয়ে।
সংবাদ সম্মলনে রেলমন্ত্রী জানান, ঈদের আগাম টিকেট কিনতেও জাতীয় পরিচয়পত্র দেখাতে হবে। তাছাড়া ঈদের অগ্রিম টিকেট ফেরত দেওয়া যাবে না। বিশেষ ট্রেনের টিকেট মোবাইল অ্যাপে পাওয়া যাবে না।
বাংলাদেশ রেলওয়ে জানিয়েছে, বর্তমানে সারাদেশে দৈনিক ৩৫৪টি ট্রেন চলাচল করে। ঈদের আগের আরও আটটি বিশেষ ট্রেন চলবে। সব মিলিয়ে ঈদের আগে প্রতিদিন প্রায় দুই লাখ নব্বই হাজারের মতো যাত্রী বহন করা যাবে।

x