চকরিয়ায় দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ১

অস্ত্র গুলি ও ইয়াবা উদ্ধার

চকরিয়া প্রতিনিধি

রবিবার , ২২ জুলাই, ২০১৮ at ৫:১৯ পূর্বাহ্ণ
62

কক্সবাজারের চকরিয়ায় মাদক ব্যবসার নিয়ন্ত্রণের বিরোধ নিয়ে দুই দলের মধ্যে আধঘন্টাব্যাপী বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটেছে। এ সময় প্রতিপক্ষের ছোড়া গুলিতে বিদ্ধ হয়ে নিহত হয়েছেন চকরিয়ার শীর্ষ মাদক কারবারি ফেন্সিডিল সম্রাট ওরফে ডাইল সম্রাট মোহাম্মদ ইসমাইল (৩০)। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ৪৬৫ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, একটি এলজি ও দুই রাউন্ড কার্তুজ উদ্ধার করে। বন্দুকযুদ্ধে নিহত ডাইল সম্রাট ইসমাইলের মরদেহ উদ্ধার করে সুরতহাল প্রতিবেদন তৈরি শেষে ময়নাতদন্তের জন্য লাশ কক্সবাজার সদর হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে গতকাল শনিবার সকালে। এর আগে ভোররাত পৌণে তিনটার দিকে চকরিয়ালামাআলীকদম সড়কের চকরিয়ালামার সীমান্তবর্তী কুমারী ব্রিজের কাছে বিবদমান মাদক কারবারি সশস্ত্র দুইদলের মধ্যে এই বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানিয়েছে, মাদক কারবারের নিয়ন্ত্রণ নিয়ে দুইদলের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধে আরো কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়েছে। তবে তারা কোথায় চিকিৎসা নিচ্ছে বা তাদের পরিচয় নিশ্চিত করা যায়নি। বন্দুকযুদ্ধে নিহত মাদক কারবারি মোহাম্মদ ইসমাইল চকরিয়া পৌরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের কোচপাড়া গ্রামের আবদুস সালামের ছেলে। পুলিশ জানিয়েছে, তার বিরুদ্ধে গত ১০ বছর ধরে ইয়াবা, ফেন্সিডিলসহ বিভিন্ন মাদক কারবারের অভিযোগ রয়েছে। এই সময়ে ইসমাইলের বিরুদ্ধে থানায় ৬টি মাদকের মামলা রয়েছে।

চকরিয়ালামা সড়কের কুমারী ব্রিজ এলাকার স্থানীয় কয়েকজন বাসিন্দা ও প্রত্যক্ষদর্শী জানান, গতকাল শনিবার ভোররাতে হঠাৎ করে গোলাগুলির বিকট শব্দে এলাকা প্রকম্পিত হয়ে উঠে। এই অবস্থায় লোকজনের মাঝে আতঙ্ক ছড়ায়। ভোরের আলো ফোঁটার পর ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখতে পান সেখানে একজনের গুলিবিদ্ধ দেহ ও আগ্নেয়াস্ত্রগুলি পড়ে রয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই দেহ এবং অস্ত্রগুলি উদ্ধার করছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চকরিয়া থানার (ওসি) মো. বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী দৈনিক আজাদীকে বলেন, আজ (শনিবার) ভোররাতে খবর পাই চকরিয়ালামাআলীকদম সড়কের চকরিয়ার সীমান্তবর্তী কুমারী ব্রিজের কাছে মাদক কারবারি দুইদলের মধ্যে আধিপত্য নিয়ে বন্দুকযুদ্ধ চলছে। তাৎক্ষণিক বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে সর্তীর্থ এবং প্রতিপক্ষের সদস্যরা পালিয়ে যায়। এ সময় ঘটনাস্থল থেকে উদ্ধার করা হয় দেশে তৈরি একটি এলজি ও দুই রাউন্ড গুলি। এছাড়াও মুমূর্ষু অবস্থায় মাদক কারবারি মো. ইসমাইলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ব্যাপারে হত্যা, অস্ত্র ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক তিনটি মামলা রুজু করা হয়েছে।

x