খেলতে না পেরে হতাশ মাশরাফি

বুধবার , ১২ জুন, ২০১৯ at ৬:১৩ পূর্বাহ্ণ
15

শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে না খেলে একটি পয়েন্ট পেলো বাংলাদেশ। চার ম্যাচ শেষে ৩ পয়েন্ট নিয়ে সপ্তম স্থানে উঠে গেছে তারা। পাকিস্তানকে তারা পেছনে ফেলেছে বৃষ্টিতে পণ্ড হওয়া ম্যাচের পর। কিন্তু এভাবে পয়েন্ট পাওয়ায় সন্তুষ্ট হতে পারছেন না অধিনায়ক মাশরাফি মুর্তজা। ম্যাচ খেলতে না পারায় হতাশা ঝরলো মাশরাফির কণ্ঠে, ‘মাঠে আসার পর খেলতে না পারা সব দলের জন্যই হতাশা আর আক্ষেপের। এভাবেই টুর্নামেন্ট এগিয়ে যাচ্ছে, নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আমরা জয়ের সুযোগ পেয়েছিলাম, ইংল্যান্ড ম্যাচে অবশ্য পাইনি। কিন্তু আজকের দিনটা ছিল হতাশাজনক।’ আগামী সোমবার টন্টনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। এই ম্যাচের আগে সাকিব সুস্থ হয়ে উঠবেন বিশ্বাস মাশরাফির, ‘আমি মনে করি সাকিব সুস্থ হয়ে উঠবে। সেরে উঠতে এখনও হাতে চার থেকে পাঁচদিন আছে। হ্যাঁ, টন্টন খুব ছোট মাঠ এবং এজন্য ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে খেলা সহজ হবে না। কিন্তু কঠিন লড়াই করার বিকল্প নেই আমাদের কাছে।’
নিজ দেশের বিপক্ষে খেলতে কোন বাড়তি উত্তেজনা নেই আর্চারের

বিশ্বকাপে আগামী শুক্রবার ওয়েস্ট ইন্ডিজের মোকাবেলা করবে স্বাগতিক ইংল্যান্ড। তবে এ ম্যাচে আলাদা কোন তাৎপর্য নেই বারবাডোজে জন্ম গ্রহণ করা ইংল্যান্ড পেসার জোফরা আর্চারের কাছে। বৃটিশ পিতার সন্তান ২৪ বছর বয়সী আর্চারের জন্ম স্থান বারবাডোজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের হয়ে অনুর্ধ-১৯ ক্রিকেট দলে খেলেছেন তিনি। এরপর পাড়ি জমান ইংল্যান্ডে। আর্চার মাত্র গত মার্চে ইংল্যান্ডের হয়ে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছেন এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ম্যাচটি হবে তার কেবলমাত্র সপ্তম ওয়ানডে। বিবিসি স্পোর্টসকে আর্চার বলেন, এটা কেবল আরেকটা ক্রিকেট ম্যাচ। যেমন ছিল শেষ ম্যাচটাও। আমি তাদেরকে বেশ ভালভাবেই জানি। তাদের হয়ে আমি কয়েকটি অনুর্ধ-১৯ ম্যাচ খেলেছি। সুতরাং তাদের বিপক্ষে খেলাটা সত্যিই ভাল হবে।
ইংলিশ কাউন্টিতে বর্তমানে সাসেঙের হয়ে খেলছেন আর্চার। ইংল্যান্ডের হয়ে খেলা বারবাডোজে জন্ম গ্রহণকরা আরেক খেলোয়াড় সাসেঙ সতীর্থ ক্রিস জর্ডান আর্চারকে ইংলিশ ক্রিকেটের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন। ইংল্যান্ডের হয়ে খেলতে আর্চারকে ২০২২ সাল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে বলে ধারনা করা হয়েছিল। তবে ইংল্যান্ড এন্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড অভিবাসন আইনে পরিবর্তন আনায় ইংলিশদের হয়ে তার আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ক্রিকেট খেলার পথ খুলে যায়। এর মধ্যেই তিনি ইংল্যান্ড সেট আপে জায়গা করে নেন। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে ঘরোয়া টি-২০ লীগ খেলতে শুরু করেন এবং বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি ক্রিকেটে অর্জিত জ্ঞানকে সাবেক ওয়েস্ট ইন্ডিজ সতীর্থদের জানার সঙ্গে তুলনা করেন।

x