খাগড়াছড়িতে জেএসএস সদস্যকে অপহরণ ও নির্যাতনের অভিযোগ

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি

শনিবার , ১২ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৪:৩০ পূর্বাহ্ণ
15

খাগড়াছড়িতে আঞ্চলিক সংগঠন জেএসএস (এমএন লারমা) সদস্যকে অপহরণ ও নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে। এই ঘটনার জন্য প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফকে দায়ী করেছে জেএসএস (এমএন লারমা)। অপহরণের শিকার কিরণ চাকমা (মনিয়া) দীঘিনালার মেরুং ইউনিয়নের অনন্ত কার্বারি পাড়ার বাসিন্দা এবং জেএসএস (এমএন লারমা)এর মেরুং ইউনিয়ন কমিটির সদস্য। দুর্গম এলাকায় হওয়ায় ঘটনাস্থলে পৌঁছাতে পারেনি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।
জেএসএস (এমএন লারমা) এর কেন্দ্রীয় তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সুধাকর ত্রিপুরা জানান, ‘জেএসএস (এমএন লারমা) এর রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত থাকায় বৃহস্পতিবার রাত আনুমানিক সাড়ে ১১ টার দিকে নিজ বাড়ি থেকে কিরণ চাকমাকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। পরে পানছড়ির গভীর জঙ্গলে আটকে রাখে শারীরিক নির্যাতন চালায়। তবে শেষ পর্যন্ত অপহৃত কিরণ চাকমার কি পরিণতি হয়েছে তা তিনি কিছু জানাতে পারেন নি।
দলটির সূত্রে আরো জানা যায়, ‘একাদশ সংসদ নির্বাচনে জেএসএস (এম এন লারমা) আওয়ামী লীগকে সমর্থন করে। স্থানীয় কর্মী কিরণ চাকমাও এলাকায় নৌকা প্রতীকের পক্ষে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণায় অংশ নেন। এ কারণেই ইউপিডিএফ কিরণ চাকমাকে অপহরণ করে।’
তবে ঘটনার সাথে নিজেদের জড়িত থাকার অভিযোগ অস্বীকার করে ইউপিডিএফ এর কেন্দ্রীয় সংগঠক মাইকেল চাকমা বলেন, ‘আমরা এসব ঘটনায় জড়িত না। এসব ওদের (জেএসএস-লারমা) বানোয়াট অভিযোগ।’ দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি উত্তম চন্দ্র দেব জানান, অপহরণের বিষয়টি শুনলে এ বিষয়ে তাদের কাছে কেউ অভিযোগ করেনি। তবে এই বিষয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী তৎপর রয়েছে।

- Advertistment -