অভিন্ন ক্রিপ্টোকারেন্সি চালু করছে সৌদি আরব ও আরব আমিরাত

আবদুস শাকুর, শারজাহ (আরব আমিরাত) থেকে

শুক্রবার , ১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯ at ৯:৫৫ অপরাহ্ণ
361
সৌদি আরব ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ঘোষণা দিয়েছে উভয় দেশ তাদের মধ্যে বিদ্যমান ডিজিটাল মুদ্রা আপাতত দুদেশের কিছু ব্যাংকেই সীমাবদ্ধ রাখবে। একই সাথে দেশ দু’টি ঘোষণা দিয়েছে অভিন্ন মুদ্রা চালু করার ব্যাপারেও। গত মঙ্গলবার এই ঘোষণা দেয়া হয়।
দু’দেশের জনগণের জন্য পরিকল্পিত নতুন এই মুদ্রার  নাম হবে আবের (Aber)।দু’টি দেশের মধ্যে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড স্থায়ীভাবে সুচারুরুপে সম্পন্ন করতেই এই পদক্ষেপ। ব্লকচেইন এবং ডিস্ট্রিবিউটেড লেজার প্রযুক্তিতে এই কারেন্সির আদান-প্রদান পরিচালিত হবে বলে জানানো হয়।
খালিজ টাইমস সূত্রে জানা গেছে, যেহেতু সৌদি আরব মনিটারি অথরিটি ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের কেন্দ্রীয় ব্যাংক ‘আবের’ প্রকল্প বাস্তবায়নে সম্মত হয়েছে সেহেতু উভয় দেশ এখন এই প্রকল্পের প্রযুক্তিগত দিকের বিষয়ে প্রাথমিকভাবে মনোযোগ দেবে। উপসাগরীয় অঞ্চলের প্রভাবশালী পত্রিকা খালিজ টাইমস-এর খবরের তথ্যমতে, এই কারেন্সির ব্যবহার হবে উভয় দেশের প্রতিটি প্রদেশের নির্দিষ্ট সংখ্যক ব্যাংকের মধ্যে।
এই পাইলট প্রকল্পটি ঠিক করা হয় আধুনিক প্রযুক্তিগত দিক পর্যালোচনা করেই এবং উভয় দেশের রেমিটেন্স খরচ কমানোর লক্ষে। উভয় দেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংক অবশ্য এজন্য কোনো নির্দিষ্ট দিনক্ষণ ঘোষনা করেনি।
পৃথিবীর অনেক দেশেই ব্লক-চেইন এবং ডিস্ট্রিবিউটেড লেজার প্রযুক্তিতে ডিজিটাল কারেন্সির আদান-প্রদানের ক্ষেত্রে গবেষণা হচ্ছে। কিছু দেশ এই পাইলট প্রকল্পে ইতোমধ্যে কাজ করছে। কেন্দ্রীয় ব্যাংকভিত্তিক আধুনিক মুদ্রার এই ব্যবস্থা ক্রস বর্ডার তথা সীমানা অর্থব্যবস্থায় আদান-প্রদানকে অধিকতর নিরাপদ করবে। সৌদি আরব ও আরব আমিরাত আশাবাদ ব্যক্ত করেছে যে উভয় দেশ জাতীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে এতে উপকৃত হবে।
উল্লেখ্য, আরব আমিরাতের অনেক কোম্পানি ব্লকচেইন প্রযুক্তি ব্যবহার শুরু করেছে কোম্পানির অভ্যন্তরিণ লেনদেনে। এটি হচ্ছে ইন্টারনেটভিত্তিক একটি ব্যবস্থা যা নির্দিষ্ট  কম্পিউটার, ব্যাংক ২টি, দেশের মধ্যে নির্দিষ্ট একটি সার্ভারে পরিচালিত হয়।এই ব্যবস্থাকে অর্থব্যবস্থাপনায় নতুন বিপ্লব হিসাবে গণ্য করা হচ্ছে।
x