ক্ষমা চাইবেন সানি

মঙ্গলবার , ২২ জানুয়ারি, ২০১৯ at ৫:৩৯ পূর্বাহ্ণ
228

চিত্রনায়ক ওমর সানি হাতজোড় করে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। শর্ত, তার স্ত্রী মৌসুমী বিএনপির সাংস্কৃতির সংগঠন জাসাস করতেন এর প্রমাণ দিতে হবে। সংরক্ষিত নারী আসন থেকে সংসদ সদস্য হতে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন ফরম কেনার পর মৌসুমীর রাজনৈতিক বিশ্বাস নিয়ে বিতর্ক চাড়া দেয়। বিএনপি-জামায়াত জোট সরকারের আমলে তারেক রহমানের সঙ্গে এক অনুষ্ঠানে বেলুন ওড়ানোর ছবিতে মৌসুমীর অংশ নেওয়ার ছবি ভাইরাল। মৌসুমীর দাবি, তিনি রাজনীতি করতেন না। তবে তারকাদেরকে অনেক জায়গায় যেতে হয়। ওই ঘটনাটি তেমনটি এক বিষয়। তবে কথা ছড়িয়েছে, জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক সংসদের (জাসাস) নেত্রী ছিলেন এই নায়িকা। আর এতেই ক্ষেপেছেন ওমর সানি। দিয়েছেন চ্যালেঞ্জ।
সানি বলেন, ‘কোনো সরকারের আমন্ত্রণে তাদের অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকার মানে এই নয় যে মৌসুমী জাসাস করত। এটা যদি কেউ প্রমাণ করতে পারে তবে আমি প্রকাশ্যে রাস্তায় দাঁড়িয়ে হাতজোড় করে ক্ষমা চাইব।’ ‘জাসাসের কোথাও মৌসুমীর কোনো নাম বা স্বাক্ষর আছে কি না আপনারা দেখান। ক্ষমতায় থাকা সরকারের অনুষ্ঠানে গেলে যদি সেই দল করা হয়, তবে তো রিয়াজ, পূর্ণিমা, অমিত হাসান এবং মিশা সবাই জাসাস করতো। তারাও সে সময় বিভিন্ন অনুষ্ঠানে হাজির হতো।’ সানির দেওয়া চ্যালেঞ্জ কেউ গ্রহণ করবে কি? কারণ সোশ্যাল মিডিয়ায় তারেক রহমান এবং তার স্ত্রী জোবাইদার সঙ্গের ওই ছবিটি ছাড়া আর কোনো তথ্য উপাত্ত পাওয়া যায়নি। ইতিমধ্যে মৌসুমী তার স্বামী ওমর সানিকে সঙ্গে নিয়ে মনোনয়ন ফরম জমা দিয়েছেন। এরপর ভক্ত-সমর্থক সবার কাছে স্ত্রীর জন্য দোয়া চান ওমর সানি। ২০১৭ সালেও একবার তারেকের অনুষ্ঠানে মৌসুমীর হাজির থাকা নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল। সে সময় অভিনেতা ও উপস্থাপক শাহরিয়ার নাজিম জয়ের একটি টকশোতে এ বিষয় নিয়ে কথা বলতে হাজির হয়েছিলেন মৌসুমী ও ওমর সানি। সেই অনুষ্ঠানে জয় মৌসুমীর রাজনৈতিক অবস্থান সম্পর্কে জানতে চেয়েছিলেন। উত্তরে মৌসুমী বলেন, ‘শিল্পীদের কোনো দল নেই। চাইলেই কেউ আওয়ামী লীগ বা বিএনপির সঙ্গে ঘেঁষতে পারবে না।’

x