কৃষকদের ন্যায্য মূল্য দেওয়া হোক

বুধবার , ৩১ জুলাই, ২০১৯ at ১০:৪৮ পূর্বাহ্ণ
12

মাথার ঘাম পায়ে ফেলে রাতদিন ঝড় বৃষ্টি একাকার করে কৃষকের নিষ্পাপ স্বপ্নে ফলানো হয় সোনালি ফসল। কৃষকের কষ্টকে মূল্যায়ন না করার দাম কৃষি উন্নয়ন হতে পারে না। রাসায়নিক সার, সেচ, হালচাষ, শ্রমিক খরচ বাদ দিলে প্রতি মণ ধানে ২০০ টাকা থেকে ৩০০ টাকা লোকসান। ধান কাটার জন্য কাঠাপ্রতি একজন শ্রমিক মূল্য নিচ্ছে ৯০০ টাকা। আর ৯০০ টাকার জন্য কৃষকের ধান বিক্রি করতে হয় দুইমণ। কাঠাপ্রতি ধান পাঁচ ছয় মণের বেশি হয় না। পানির চেয়ে সস্তা ধান। কৃষকের এই দু:খ দেখার কি কেউ নেই? কৃষক ন্যায্য মূল্য পাচ্ছে না।
এক কেজি চালের দাম ৩৫-৪০ টাকা, ৬৫ টাকা। কৃষক ধান বিক্রি করে সংসার চালায়। সন্তানদের পড়াশোনা করায়। কৃষকের আয়ে কোনো দুর্নীতি নেই, কোনো উপরি পাওনা নেই, কোনো কারসাজি নেই। তবে কেন কৃষককে এভাবে মূল্যহীন করে দিয়ে অপমান করা হচ্ছে? তাদের যত্নে ফলানো ফসল ১৮ কোটি মানুষের আহার। কৃষকদের ন্যায্য মূল্য পাওয়া তাদের প্রাপ্য। পরিশেষে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে জোর আবেদন থাকবে কৃষকদের প্রতি সুনজর রাখার জন্য।
রাজীব হোড় (রাাজু), সুধিষ্ঠির মহাজন বাড়ি,
দক্ষিণ কাট্টলি, চট্টগ্রাম-৪২১৯।

x