কাল থেকে শুরু হচ্ছে চারদিনব্যাপী একাদশ বাঙালি সংস্কৃতি মেলা

আনন্দন প্রতিবেদক

বৃহস্পতিবার , ১১ জানুয়ারি, ২০১৮ at ৫:২৫ পূর্বাহ্ণ
81

চলো বাঙালির শেকড় সন্ধানে’ স্লোগানে আগামী ১২, ১৩, ১৪ ও ১৫ জানুয়ারি শুক্র, শনি, রবি ও সোমবার চট্টগ্রাম মুসলিম ইনস্টিটিউট ও পাবলিক লাইব্রেরি চত্বর জুড়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এবং BISK CLUB এর প্রেজেন্টস্‌ একাদশ বাঙালি সংস্কৃতি মেলা১৪২৪। অবসর সংস্কৃতিক গোষ্ঠী চট্টগ্রামের এগিয়ে চলার ৩৫ বছরে এ মেলার আয়োজন করা হচ্ছে। একাদশ মেলায় থাকবে চট্টগ্রাম উৎসব, স্বাধীনতা উৎসব, লোক উৎসব, সমাপনী অনুষ্ঠান ও প্রীতি সম্মেলন, কবিতা ও ছড়া উৎসব, অবসর সাহিত্য পুরস্কার, রত্নগর্ভা মা সম্মাননা, মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা, অবসর শিল্পী সম্মাননা, অবসর সংগঠন সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান, প্রয়াত চট্টল মনীষী ও সংগঠন কার্যক্রমের আলোকচিত্র প্রদর্শনী, সংগঠন মুখপত্র ‘আগামী’ প্রকাশ, বই চারুকারু ও বাঙালি সংস্কৃতির সাথে সঙ্গতিপূর্ণ নানা বিষয়আশয়ের স্টল প্রদর্শনী ইত্যাদি।

মেলার কর্মসূচিতে রয়েছেউদ্বোধনী দিন: ১২ জানুয়ারি, শুক্রবার বিকেল ৩টায় জেএমসেন হল প্রাঙ্গণে প্রতিষ্ঠিত মাস্টারদা সূর্যসেন ও অন্যান্য ৪ বিপ্লবীর আব প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে পুষ্পার্ঘ অর্পণ, বাঙালির চিরায়ত ঢোল বাদন, অবসর সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী চট্টগ্রামের শিল্পীবৃন্দের পরিবেশনায় জাতীয় সংগীত, অবসর সংগীত ও বাঙালি সংস্কৃতি মেলার গান পরিবেশনের মাধ্যমে উদ্বোধনী অনুষ্ঠান। মেলার উদ্বোধন করবেনপ্রধান অতিথি ভূমি প্রতিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এম.পি। মূল মেলা উদ্বোধনের পর সুরাঙ্গন বিদ্যাপীঠএর শিল্পীদের পরিবেশনায় দেশাত্মবোধক ও চট্টগ্রামের আঞ্চলিক গানের সাথে নৃত্যের মাধ্যমে ব্রিটিশবিরোধী আন্দোলনের অগ্রনায়ক মাস্টারদা সূর্যসেনের ৮৮তম ফাঁসি দিবসে তাঁকে উৎসর্গীত ‘চট্টগ্রাম উৎসব’ উদ্বোধন করবেন মুক্তিযোদ্ধাসাহিত্যিক বেগম মুশতারী শফী। বিকেল ৫টায় থাকবেউদ্বোধনী আলোচন, অবসর সাহিত্য পুরস্কার, অবসর রত্নগর্ভা মা সম্মাননা ও অবসর প্রাক্তন কর্মী সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান। মুখ্য আলোচক থাকবেনজেলা পরিষদ চট্টগ্রাম এর চেয়ারম্যান আবদুস সালাম। বিশেষ অতিথি থাকবেনবাংলাদেশ বার কাউন্সিল এর সদস্য অ্যাড. মো. ইব্রাহীম হোসাইন চৌধুরী বাবুল, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, চ্যানেল আই এর ব্যুরো প্রধান ও চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব যুগ্ম সম্পাদক চৌধুরী ফরিদ। স্টল উদ্বোধন করবেনবিশিষ্ট ফ্যাশন ডিজাইনার ও সফল নারী উদ্যোক্তা সুলতানা নূরজাহান রোজী। অবসর সাহিত্য পুরস্কার পাবেনকবি স্বপন দত্ত ও শিশুসাহিত্যিক আলী ইমাম। অবসর রত্নগর্ভা মা সম্মাননা পাবেনকবি গল্পকার ফরিদা ফরহাদ। অবসর প্রাক্তন কর্মী সম্মাননা পাবেনদীপক দাশ ও আনোয়ারুল ইসলাম। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখবেনমেলা পরিষদের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার ও বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের জাতীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য মো: আবুল কালাম আজাদ চৌধুরী। সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি প্রাবন্ধিক মো. সঞ্জিত আলম। সন্ধে ৬টায় রয়েছে সাহিত্যিকনাট্যজন সুচরিত চৌধুরী স্মৃতি পদক প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ক ও খ শাখার প্রতিযোগীদের পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান। পুরস্কার বিতরণ করবেনচসিকের প্যানেল মেয়র চৌধুরী হাসান মাহমুদ হাসনী, দৈনিক আজাদী’র বার্তা সম্পাদক মোহাম্মদ জহুরুল ইসলাম, কদম মোবারক এম.ওয়াই উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ক্যাডেট এম.. জহুর ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ আলী। সভাপতিত্ব করবেনপ্রতিযোগিতা উপ পরিষদের আহ্বায়ক শিল্পী আবদুর রহিম। সন্ধে ৭:০০টায় রয়েছেচট্টগ্রামের গীতিকার, সুরকার, শিল্পীবৃন্দের পরিবেশনায় গান, নৃত্য ও আবৃত্তির অনুষ্ঠান পরিবেশন করবেনঅবসর ও আমন্ত্রিত শিল্পীবৃন্দ। বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করবেবোধন আবৃত্তি পরিষদ।

দ্বিতীয় দিন ১৩ জানুয়ারি, শনিবার থাকবে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে উৎসর্গিত স্বাধীনতা উৎসব। সকাল ১০টায় প্রতিযোগিতামূলক পিঠা উৎসব, মঞ্চে পরিবেশিত হবে হারানো দিনের বাংলা গান ও আবৃত্তি। অংশগ্রহণকারীদের সকাল ৯টার মধ্যে মেলা আঙিনায় এসে নাম অন্তর্ভুক্ত করতে হবে। বিকেল ৪টায় রয়েছে কবিতাছড়া উৎসব। কবি, প্রাবন্ধিক ও নজরুল গবেষক ড. আলী হোসেন চৌধুরী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠেয় উৎসবে আলোচক থাকবেনকবি ওমর কায়সার ও ছড়াশিল্পী জাকির কামাল। স্বরচিত কবিতাপাঠ ও আবৃত্তিতে অংশ নেবেননবীনপ্রবীণ কবি ও আবৃত্তি শিল্পীবৃন্দ। সন্ধে ৬টায় রয়েছে অবসর মুক্তিযোদ্ধা সম্মানন ও অবসর সংগঠনের সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান। প্রধান অতিথি থাকবেনসিটি মেয়র আলহাজ্ব আ..ম নাছির উদ্দিন। উদ্বোধক থাকবেনমোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী এম.পি। মুখ্য আলোচক থাকবেননোয়াখালী জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ডা. এ জি এম জাফর উল্লাহ। বিশেষ অতিথি থাকবেনগণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মো. জামাল উদ্দিন আহমেদ ও চট্টগ্রাম জজ কোর্ট এর অতিরিক্ত পিপি অ্যাড. সাইফুন নাহার খালেক। অবসর মুক্তিযোদ্ধা সম্মাননা পাবেনমুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মোহাম্মদ ইদ্রিছ। অবসর সংগঠন সম্মাননা পাবেআর্য্যসংগীত সমিতি সুরেন্দ্র সংগীত বিদ্যাপীঠ, পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করবেন আর্য্যসংগীত সমিতির অধ্যক্ষ ওস্তাদ মিহির লালা। সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের সহসভাপতি ডা. তাসলিম চৌধুরী। সন্ধে ৭টায় সাংস্কৃতিক পর্বে স্বদেশ প্রেমের গান, আবৃত্তি এবং নৃত্য পরিবেশন করবেনঅবসর ও আমন্ত্রিত শিল্পীবৃন্দ। বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করবে প্রমা আবৃত্তি সংগঠন। দলীয় পরিবেশনায় আর্য্যসংগীত সমিতি সুরেন্দ্র সংগীত বিদ্যাপীঠ, চট্টগ্রাম। নাটকচট্টগ্রাম থিয়েটার। নৃত্যবাংলাদেশ শিশু একাডেমি, চট্টগ্রাম।

তৃতীয় দিন ১৪ জানুয়ারি, রবিবার চট্টগ্রামের সকল লোকশিল্পী, গীতিকার, সুরকার ও লোক গবেষকবৃন্দকে উৎসর্গিত লোক উৎসব উদ্বোধন করবেনকবিয়াল বাবুল দাশ, কবিয়াল মোহাম্মদ ইউসুফ ও সহশিল্পীবৃন্দের কবিগান পরিবেশনের মাধ্যমে। বিকেল ৫টায় বাঙালি সংস্কৃতি মেলা পদক ও অবসর শিল্পী সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠান। প্রধান অতিথি থাকবেনচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. ইফতেখার উদ্দিন চৌধুরী। মুখ্য আলোচক থাকবেনবিশিষ্ট লোকগবেষক ও কক্সবাজার ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য ড. মো: আবুল কাসেম। বিশেষ অতিথি থাকবেনচট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং বিভাগের অধ্যাপক ড. মো: সেলিম উদ্দিন, চট্টগ্রাম জজ কোর্ট এর প্রাক্তন পিপি অ্যাড. শেখ ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির যুগ্ম সম্পাদক মাধব দীপ। মেলা পদক ১৪২৪ পাবে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম প্রকাশিত পত্রিকা দৈনিক আজাদী, পক্ষে সম্মাননা গ্রহণ করবেন দৈনিক আজাদী সম্পাদক লায়ন এম.. মালেক। অবসর শিল্পী সম্মাননা পাবেন নন্দিত জাদুশিল্পী ও উপস্থাপক রাজীব বসাক। সভাপতিত্ব করবেন মেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উপউপাচার্য প্রফেসর ড. শিরীণ আখতার। শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখবেনমেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শিল্পী নাজমুল আবেদীন চৌধুরী। সন্ধে ৬:৩০টায় সাহিত্যিকনাট্যজন সুচরিত চৌধুরী স্মৃতিপদক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় (গ ও ঘ বিভাগ) বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার ও সনদ বিতরণী অনুষ্ঠান। পুরস্কার বিতরণ করবেনএকুশে পদকপ্রাপ্ত বাঁশী শিল্পী ওস্তাদ আজিজুল ইসলাম, চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাংবাদিক শুকলাল দাশ, ইনার হুইল লায়ন্স ক্লাবের ভাইস প্রেসিডেন্ট লায়ন ফারহানা হক, নবীন মেলার সভাপতি জামাল উদ্দিন বাবুল ও বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা চট্টগ্রাম জেলার সভাপতি সুসান আনোয়ার চৌধুরী। সভাপতিত্ব করবেনমেলা পরিষদের মহাসচিব আলী হায়দার ভূঁইয়া। সন্ধে ৭:৩০ টায় সাংস্কৃতিক পর্বে লোকজ গান, আবৃত্তি ও নৃত্য পরিবেশন করবেন অবসর ও আমন্ত্রিত শিল্পীবৃন্দ। বৃন্দ আবৃত্তি পরিবেশন করবে শব্দনোঙর, নৃত্য পরিবেশন করবেনসুরাঙ্গন বিদ্যাপীঠ, জাদু প্রদর্শন করবেননন্দিত জাদুশিল্পী ও উপস্থাপক রাজীব বসাক।

সমাপনী দিন ১৫ জানুয়ারি, সোমবার বিকাল ৫টায় সমাপনী অনুষ্ঠান, প্রীতি সম্মেলন, আনন্দ আড্ডা, অবসর শিল্পী সম্মাননা, অবসর মুখপত্র ‘আগামী’র মোড়ক উন্মোচন, পিঠা উৎসব, স্টলে অংশগ্রহণকারী ও সাহিত্যিকনাট্যজন সুচরিত চৌধুরী স্মৃতিপদক বিতরণী অনুষ্ঠান। প্রধান অতিথি থাকবেন চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনার মো: আবদুল মান্নান। মুখ্য আলোচক থাকবেনবিশিষ্ট নাট্যজন অ্যাড. দীপক চৌধুরী। বিশেষ অতিথি থাকবেন সাতকানিয়া পৌরসভার মেয়র মোহাম্মদ জোবায়ের, বীরশ্রেষ্ঠ রুহুল আমিনের কন্যা শিক্ষাবিদ মিসেস ফাতেমা আমিন। অবসর শিল্পী সম্মাননা পাবেননাট্যজন রবিউল আলম ও আলোকচিত্র সাংবাদিক মনজুরুল আলম মঞ্জু। সভাপতিত্ব করবেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা ও সভাপতি মো: সঞ্জিত আলম। আনন্দ আড্ডা ও প্রীতি সম্মেলন ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশ নেবেনঅবসর ও আমন্ত্রিত বিভিন্ন সংগঠন প্রতিনিধি, শিল্পী, সাহিত্যিক ও সুধীজন, নৃত্য পরিবেশন করবেস্কুল অব ওরিয়েন্টাল ডান্স মুভমেন্ট। মেলা উপলক্ষে আয়োজিত সকল কর্মসূচিতে সংস্কৃতিপ্রেমী সকলের উপস্থিতি কামনা করা হয়েছে।

x