ওয়েস্ট ইন্ডিজে প্রথম টেস্টে থাকছেন না মোস্তাফিজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

বুধবার , ১৩ জুন, ২০১৮ at ৫:৪৫ পূর্বাহ্ণ
42

আইপিএল শেষ করে ইনজুরি নিয়ে দেশে ফিরেছিলেন বাংলাদেশ দলের পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। দেশে ফিরে কাউকে কিছু না জানিয়ে চলে যান গ্রামের বাড়িতে। সেখান থেকে ফিরেই জানা যায় ইনজুরিতে আছেন তিনি। ফলে একেবারে শেষ মুহূর্তে বাদ দেওয়া হয় তাকে ভারতে অনুষ্ঠিত আফগানিস্তানের বিপক্ষে সিরিজের দল থেকে। এরই মধ্যে এক মাসের মত হয়ে গেলেও মোস্তাফিজুর রহমানের ইনজুরি আক্রান্ত বাঁ পায়ের আঙ্গুলে আশানুরূপ উন্নতি দেখছে না বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) মেডিক্যাল বিভাগ। ফলে আগামী ৪ থেকে ১২ জুলাই স্বাগতিক ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে অ্যান্টিগুয়ায় অনুষ্ঠেয় সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচটি বাঁহাতি এ টাইগার পেসার খেলতে পারবেন কী না সে বিষয়ে তারা শঙ্কা প্রকাশ করেছে বিসিবির মেডিকেল বোর্ড।

গতকাল মঙ্গলবার আসন্ন ক্যারিবীয় দ্বীপপুঞ্জ সফরে মোস্তাফিজের খেলার সম্ভাবনা নিয়ে সংবাদ মাধ্যমের সাথে কথা বলেছিলেন বিসিবির প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী। তার বক্তব্যে বিষয়টি স্পষ্ট হলো। দেবাশীষ বলেন, ‘আইপিএল খেলতে গিয়ে গত ২০ মে বাঁ পায়ের বৃদ্ধাঙ্গুলে ব্যথা পেয়েছে মোস্তাফিজ। এই ধরনের ইনজুরিতে পড়লে সাধারণত আমরা ২১ দিনের জন্য কোনো ধরনের ওজন না নেয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকি। যেন কোনোভাবেই পায়ের ওপরে চাপ না পড়ে। সমস্যা হয়েছে প্রথম এক সপ্তাহ ও পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিতে পারেনি। সেজন্য আমরা গত ২৫, ২৬ মে থেকে ওর ২১ দিনের হিসেব করছি। সেক্ষেত্রে এ মাসের ১৪, ১৫ তারিখ ওর ২১ দিন হয়ে যায়। সেই পর্যন্ত তাকে ওজনহীন কার্যকলাপ চালিয়ে যেতে হবে। ঈদের পরে আমরা মোস্তাফিজকে হাঁটার অনুমতি দেব। সেটা যদি ও করতে পারে তাহলে দৌড়ানোর অনুমতি পাবে। আমরা ধরে নিচ্ছি বোলিং করতে ওর ঈদের পরেও সপ্তাহখানেক লেগে যাবে। আর এটাও নির্ভর করছে তার উন্নতির ওপর। দেবাশীষ বলেন আমাদের একটা পরিকল্পনা আছে মোস্তাফিজকে আমরা আসন্ন শ্রীলঙ্কার সাথে বাংলাদেশ ‘এ’ দলের যে খেলা আছে সেখানে খেলাবো। ফিটনেসের জন্যই মূলত দুটি ম্যাচ খেলাব তাকে। যদি সে দ্বিতীয় ও তৃতীয় ম্যাচটি কোনো ঝক্কি ছাড়া খেলতে পারে তারপরে সে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের সাথে যোগ দিতে পারবে। তবে প্রথম টেস্টে থাকাটা এই কাটার মাস্টারের জন্য কঠিন হয়ে যাবে। আসলে বোলিং শুরু করলে বুঝতে পারবো সিরিজে সে খেলতে পারবে কী না। তবে সামান্যতম সমস্যা হলেও তাকে আমরা খেলার অনুমতি দেব না। কারন ইনজুরির ব্যাপারে বোর্ড বেশ সিরিয়াস। কোন ধরনের ইনজুরি নিয়ে আমরা কোন ক্রিকেটারকে খেলায় অংশ নিতে দিতে পারিনা।

উল্লেখ্য, গেল আইপিএলে মুম্বাই ইন্ডিয়ানসের হয়ে খেলা মোস্তাফিজুর রহমান আঙ্গুলে আঘাত পান নিজেদের শেষ ম্যাচে। ইনজুরি নিয়ে দেশে ফিরলেও বিসিবি মেডিকেল বিভাগকে কিছু না জানিয়েই দেশের বাড়ি বেড়াতে চলে যান। সেখান থেকে ফিরে একদিনের জন্য দলের অনুশীলন ক্যাস্পে যোগ দেন। পরে দেরাদুন যাওয়ার আগের দিন বিকেলে বিসিবি মেডিকেলে পা দেখাতে এলে চিকিৎসক জানিয়ে দেন তার আফগান সিরিজে অংশ নেয়া হচ্ছে না। তবে এবারে যেহেতু ওয়েস্ট ইন্ডিজের মাটিতে সিরিনজ। সেহেতু মোস্তাফিজের বিষয়ে ভেবে চিন্তে সিদ্ধান্ত নিতে চাইছে বিসিবির মেডিকেল বোর্ড।

x