‘এসডিজি অর্জনে ভূমিকা রাখবে উদ্যোক্তারাই’

রবিবার , ১৪ এপ্রিল, ২০১৯ at ৭:৫২ পূর্বাহ্ণ
17

বেকারত্ব নিরসনে উদ্যোক্তাদের ইতিবাচক ভূমিকা প্রয়োজন। দ্রুত প্রযুক্তিগত পরিবর্তনের সময়কালে শিক্ষা ও বৃত্তিমূলক প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তরুণ প্রজন্মকে প্রয়োজনীয় জ্ঞান, দক্ষতা ও ধারণা অর্জনের মাধ্যমে সামগ্রিক অর্থনৈতিক উন্নয়নে উদ্যোক্তা হিসাবে গড়ে তুলতে হবে। টেকসই উন্নয়নের জন্য প্রান্তিক তরুণদের মানসম্মত শিক্ষা-দক্ষতা, স্বাস্থ্য, অবকাঠামো, সংস্কৃতি-ক্রীড়া চর্চা ও মানব সম্পদের মতো সামাজিক অগ্রগতির সূচকগুলোর দিকে দৃষ্টিপাত জরুরি। জাতিসংঘ প্রদত্ত এসডিজি অর্জনে ও অর্থনীতির চালিকা শক্তিরূপে তরুণ উদ্যোক্তারাই ভূমিকা রাখতে পারে।
এসডিজি ইয়ুথ ফোরামের উদ্যোগে তরুণদের উন্নয়ন ও বেকারত্ব নিরসনে উদ্যোক্তাদের ভূমিকা শীর্ষক আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (উন্নয়ন) মো. নুরুল আলম নিজামী একথা বলেন। ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির কনফারেন্স হলে এসডিজি ইয়ুথ ফোরামের সভাপতি নোমান উল্লাহ বাহারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত অনুষ্ঠানে অতিথি ছিলেন ই-লার্নিং বিশেষজ্ঞ ও শিক্ষাবিদ অধ্যাপক ড. বদরুল হুদা খান, ইউএসটিসির প্রাক্তন উপাচার্য অধ্যাপক ডা. প্রভাত চন্দ্র বড়ুয়া, কাউন্সিলর আবিদা আজাদ, নারীনেত্রী জেসমিন সুলতানা পারু, উদ্যোক্তা রওশন আরা চৌধুরী, শিক্ষক প্রশিক্ষক শামসুদ্দিন শিশির, চট্টগ্রাম মহিলা টিটিসি’র প্রিন্সিপাল শরীফুল ইসলাম, কর্পোরেট ব্যক্তিত্ব তানভীর শাহরিয়ার রিমন, ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজি’র চেয়ারম্যান আহছান হাবিব, লেখক সৈয়দ মো: জুলকরনাইন, ড. মুহাম্মদ কামাল উদ্দিন, চট্টগ্রাম বিভাগীয় শ্রম ও কর্মসংস্থান কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মহেন্দ্র চাকমা, চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের কর্মকর্তা আরিফ আহমেদ, এনজিও কর্মী সোহাইল আক্তার খান, নাছিমা শওকত, নেছার আহমেদ খান, ডেমোক্রেসি ইন্টারন্যাশনাল-চট্টগ্রামের মাস্টার ট্রেইনার জসিম উদ্দিন চৌধুরী, এ্যাকশন এইডের প্রতিনিধি ফরহাদুর রহিম, সম্মিলিত সামাজিক সংগঠন পরিষদের সভাপতি ওসমান ফারুকী হিমাদ্রী, উদ্যোক্তা এম এ হোসেন বাদল, প্রশিক্ষক আফসানা জাহান, ডেল্টা লার্নিং সেন্টারের সিইও মো: আলমগীর, সেহের অটিজম সেন্টারের পরিচালক তাবাসসুম জেরিন, এসডিজি ইয়ুথ ফোরামের সম্পাদক দহেন বিকাশ ত্রিপুরা, এ্যাবাকাস’র প্রতিষ্ঠাতা রাসেল আহমেদ, রোটারেক্ট ওয়াহিদ মুরাদ, নগরফুলের সভাপতি বায়েজিদ সুমন, এসডিজি ইয়ুথ ফোরামের সদস্য ফাইজা তাসনিয়া প্রমুখ। সাম্প্রতিক সময়ে ‘রাইড শেয়ারিং’ কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে নতুন দিগন্তের সূচনা করেছে। ব্লু ইকোনমিতে তরুণরা সহজে ব্যবসা করার সুযোগ গ্রহণ করলে কর্মসংস্থান সৃষ্টি প্রসারিত হবে। বেকারত্ব শূন্যের কোটায় আনয়নে বিদ্যমান চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় আয়বর্ধক ও উৎপাদনমুখী খাতে বেসরকারি বিনিয়োগ বাড়িয়ে তোলা এবং উদ্যোক্তাদের অগ্রগামী ভূমিকা নিশ্চিত হলে অর্থনীতি আরো সমৃদ্ধ হবে। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x