এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়ন করতে হবে

প্রশিক্ষণ কর্মশালায় বক্তারা

মঙ্গলবার , ১০ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৭:০৯ পূর্বাহ্ণ
16

চট্টগ্রাম জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের উদ্যোগে ও ইউনিসেফ বাংলাদেশের সহযোগিতায় মানসম্মত লেখাপড়ার পরিবেশ সৃষ্টি করতে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম (টিওটি) বিষয়ে দুই দিনব্যপী প্রশিক্ষকগণের প্রশিক্ষণ কর্মশালা গতকাল সোমবার নগরীর একটি হোটেলে সম্পন্ন হয়েছে। জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার (ভারপ্রাপ্ত) হৃষীকেশ শীলের সভাপতিত্বে ও ডবলমুরিং থানা শিক্ষা অফিসার চৌধুরী আবদুল্লাহ আল মামুনের সঞ্চালনায় প্রশিক্ষণ কর্মশালার উদ্বোধনী ও সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন প্রাথমিক শিক্ষা চট্টগ্রাম বিভাগের উপ-পরিচালক মো. সুলতান মিয়া।
বিশেষ অতিথি ছিলেন ইউনিসেফ বাংলাদেশের চট্টগ্রাম বিভাগীয় হেড অব জোন মাধুরী ব্যনার্জী। স্বাগত বক্তব্য দেন, সহকারী জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মো. জহির উদ্দিন চৌধুরী। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন, চট্টগ্রাম পিটিআই সুপার কামরুন নাহার। নগরীর কোতোয়ালী, চাঁন্দগাও, পাঁচলাইশ, ডবলমুরিং ও পাহাড়তলী থানা শিক্ষা অফিসার, সহকারী থানা শিক্ষা অফিসার, ইউআরসির ইন্সট্রাক্টর, পিটিআই সুপার ও ইন্সট্রাক্টরসহ মোট ১৭ জন প্রশিক্ষককে মানসম্মত প্রাথমিক শিক্ষা বাস্তবায়নে বিদ্যালয়ের কার্যক্রম বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান করেন ইউনিসেফের শিক্ষা অফিসার আফরোজা ইয়াছমিন।
কর্মশালায় বক্তারা বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা টানা তৃতীয়বার ক্ষমতায় থেকে শিক্ষার মানোন্নয়নে যথেষ্ট গুরুত্ব দিয়ে যাচ্ছেন। আমরা ইতোমধ্যে এমডিজি অর্জনসহ উন্নত দেশের তালিকায় স্থান করে নিয়েছি। এসডিজির লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে সরকারের অন্যান্য উদ্যোগের পাশাপাশি শিশুদের জন্য মানসম্মত পড়ালেখা, স্বাস্থ্যসেবাসহ শিশুর সুরক্ষা, নিরাপত্তা, নীতি-নৈতিকতা, খেলাধুলা, বিনোদন, বাল্য বিবাহ রোধ ও শিশুদের প্রতি বিনিয়োগের বিষয়কে সরকার প্রাধান্য দিয়েছেন। শিশু সুরক্ষায় শিশু বান্ধব নীতি বাস্তবায়নসহ শিশুর বিকাশের জন্য দীর্ঘ ও মধ্য মেয়াদী পরিকল্পনা রয়েছে। সরকার শিক্ষা ক্ষেত্রে সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার দিয়েছেন বলে দেশে এখন শিক্ষার হার প্রায় ৭৪ শতাংশ। ঝড়ে পড়া রোধ, প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শতভাগ ভর্তি নিশ্চিত ও শিক্ষক কর্তৃক শ্রেণী কক্ষে প্রত্যেক শিক্ষার্থীকে সমানভাবে যুগোপযোগী পাঠদান নিশ্চিত করা গেলে আগামী ২০৩০ সালে এসডিজি অর্জনের পাশাপাশি মানসম্মত শিক্ষা বাস্তবায়ন হবে। সকলের আন্তরিকতায় দেশে শিক্ষার হার শতভাগে উন্নীত করা গেলে আমরা উন্নত দেশের নাগরিক হিসেবে গর্ববোধ করতে পারবো। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x