এবারও চামড়ার দাম কম, টেনশনে ব্যবসায়ীরা

আজাদী প্রতিবেদন

শুক্রবার , ১০ আগস্ট, ২০১৮ at ৩:২৬ পূর্বাহ্ণ
14

আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে কোরবানির পশুর চামড়ার দাম নির্ধারণ করেছে সরকার। এবার চামড়ার দাম গতবারের চেয়ে কম হওয়ায় চট্টগ্রামের আড়তদাররা মৌসুমী ব্যবসায়ীদের নিয়ে বেশ টেনশনে পড়েছেন। চট্টগ্রামের কাঁচা চামড়া আড়তদার সমিতির নেতারা গতকাল রাতে আজাদীকে জানান, মৌসুমী ব্যবসায়ীরা যদি গ্রামগঞ্জ ও অলিগলি থেকে খুচরা পর্যায়ে কম দামে কিনে তাহলে আমরাও তাদের কাছ থেকে কম দামে কিনে ট্যানারি মালিকদের কাছে নির্ধারিত দামে বিক্রি করতে পারবো।

ট্যানারি মালিকরা এবার ঢাকায় লবণযুক্ত প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া কিনবেন ৪৫ থেকে ৫০ টাকায়। ঢাকার বাইরে চট্টগ্রামসহ সারাদেশে এর দাম হবে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা। এছাড়া সারা দেশে খাসির চামড়া ১৮২০ টাকা এবং বকরির চামড়া ১৩১৫ টাকায় সংগ্রহ করবেন ব্যবসায়ীরা।

গতবছর ট্যানারি ব্যবসায়ীরা ঢাকায় প্রতি বর্গফুট গরুর চামড়া ৫০ থেকে ৫৫ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ৪০ থেকে ৪৫ টাকায় সংগ্রহ করেন। এছাড়া সারা দেশে খাসির চামড়া ২০২২ টাকা এবং বকরির চামড়া ১৫১৭ টাকায় সংগ্রহ করা হয়।

গতকাল বৃহস্পতিবার বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন পক্ষের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দীর্ঘ সময় বৈঠক করেও চামড়ার দাম নির্ধারণ ছাড়াই আলোচনা শেষ করেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।

এবছর প্রতি বর্গফুট খাসির চামড়ার দাম সারাদেশে ১৮ থেকে ২০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে, যা গত বছর ছিল ২০ থেকে ২২ টাকা। আর বকরির চামড়ার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে ১৩ থেকে ১৫ টাকা, যা গত বছর ছিল ১৫ থেকে ১৭ টাকা।

চট্টগ্রাম কাঁচা চামড়া আড়তদার সমিতির সাবেক সভাপতি ও উপদেষ্টা কমিটির চেয়ারম্যান মুসলিম উদ্দিন আজাদীকে জানান, চট্টগ্রামে লবণ ছাড়া ২৫ থেকে ২৭ টাকায় কাঁচা চামড়া কিনতে হবে। তাহলে আমরা আড়তদাররা ট্যানারি মালিকদের কাছে লবণ দিয়ে ৩৫৪০ টাকায় বিক্রি করতে পারবো। মৌসুমী ব্যবসায়ীরা গ্রামগঞ্জঅলিগলি থেকে কম দামে না কিনলে লোকসানে পড়ার আশংকা রয়েছে বলে জানান আড়তদার সমিতির নেতা মুসলিম উদ্দিন। মৌসুমী ব্যবসায়ীদের আইডিয়া কম। তারা বাজার মূল্যের বিষয়টি না দেখে যেদিক থেকে পারে ইচ্ছেখুশি মতো চামড়া কিনে মজুত করে। তখন তাদের কাছ থেকে আমাদেরকে বাড়তি মূল্যে চামড়া ক্রয় করে প্রক্রিয়াজাত করতে হবে।

মুসলিম উদ্দিন জানান, আন্তর্জাতিক বাজারে চামড়ার চাহিদা কম। তার উপর কাঁচা চামড়া প্রক্রিয়াজাত করতে বিদেশ থেকে যে কেমিক্যাল আসে তার দাম বেড়েছে ২ থেকে ৩ গুণ। প্রতি বছরই কোরবানির সংখ্যা বাড়ে। এবছরও চট্টগ্রামে ৫ লাখের মতো কোরবানি হবে। এরমধ্যে ৪ লাখের মতো গরু, ১ লাখেরও বেশি ছাগল এবং মহিষ কোরবানি হবে।

x