এক মাসে শনাক্ত সাড়ে ৫শ ডেঙ্গু রোগী

রতন বড়ুয়া

রবিবার , ১১ আগস্ট, ২০১৯ at ৭:৩৩ পূর্বাহ্ণ
36

চলতি বছরের মধ্য জুলাই হতে ১০ আগস্ট পর্যন্ত এক মাসেরও কম সময়ে প্রায় সাড়ে ৫শ ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর ও জেলায়। ২০১৮ সালে পুরো বছর আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ১৭৭ জন। এই হিসেবে চলতি বছরের এক মাসে শনাক্ত হওয়া রোগীর সংখ্যা গত এক বছরে আক্রান্তের প্রায় তিন গুণ। আর ২০১৭ সালে আক্রান্তের ৮ গুণেরও বেশি। ২০১৭ সালে বছর জুড়ে মাত্র ৬৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয় চট্টগ্রামে। চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন কার্যালয় ও চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ সূত্রে এ তথ্য পাওয়া গেছে। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের তথ্য মতে, চলতি বছরের মধ্য জুলাই থেকে ১০ আগষ্ট পর্যন্ত মহানগরসহ চট্টগ্রাম জেলার সরকারি ও বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালে (চমেক ছাড়া) ১৯৬ জন ডেঙ্গু রোগী পাওয়া গেছে। আর জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত এ সংখ্যা ছিল মাত্র ৫ জন। এই হিসেবে জানুয়ারি থেকে ১০ আগষ্ট পর্যন্ত চমেক হাসপাতাল ছাড়া সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন হাসপাতালে মোট ২০১ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী। আর ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে চলতি বছরের মধ্য জুলাই থেকে গতকাল পর্যন্ত চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা ৩২৮ জন। এর মধ্যে ১১৮ জন রোগী বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। আর বাকিরা সুস্থ হয়ে ইতোমধ্যে বাসায় ফিরে গেছেন বলে জানিয়েছেন চমেক হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আখতারুল ইসলাম। এর বাইরে গত দশ দিনে সিটি কর্পোরেশন জেনারেল হাসপাতালে বিনামূল্যের ডেঙ্গু টেস্টে প্রায় ২০ জন রোগীর শরীরে ডেঙ্গু ধরা পড়েছে।
এদিকে, মহানগরসহ চট্টগ্রাম জেলায় গত ২৪ ঘন্টায় নতুন ২৯ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে। গতকাল নতুন করে শনাক্ত হওয়া ২৯ জনের মধ্যে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১৮ জন রোগী ভর্তি হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. আখতারুল ইসলাম। আর গত ২৪ ঘন্টায় মহানগর ও জেলার বিভিন্ন হাসপাতালে ১১ জন ডেঙ্গু রোগী ভর্তি হয়েছে বলে নিশ্চিত করেন সিভিল সার্জন কার্যালয়ের মেডিকেল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. নুরুল হায়দার।
গত ২৪ ঘন্টায় চট্টগ্রামের সবকয়টি জেলায় (মহানগরসহ) মোট ২২৬ জন ডেঙ্গু রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে বিভাগীয় স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গেছে।
হাসপাতাল সংশ্লিষ্টদের ছুটি বাতিল : কোরবানির ঈদে সকল হাসপাতালে সংশ্লিষ্ট চিকিৎসক-নার্সদের সব ধরণের ছুটি বাতিল করেছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। ঈদের ছুটির সময়ও সকলকে নিজ নিজ কর্মস্থলে উপস্থিত থাকতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।
ডেঙ্গু পরীক্ষা ও চিকিৎসায় অর্থ বরাদ্দ : ডেঙ্গু শনাক্তে টেস্ট ও চিকিৎসা বাবদ উপজেলা হাসপাতালগুলোকে অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে মন্ত্রণালয়। প্রতিটি উপজেলা হাসপাতালকে ২ লাখ টাকা অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন সিভিল সার্জন ডা. আজিজুর রহমান সিদ্দিকী। তিনি বলেন, ডেঙ্গু আক্রান্তদের টেস্ট ও চিকিৎসা সেবা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে প্রদানের জন্যই হাসপাতালগুলোকে এ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে।

x