একটা শিশুর স্বপ্ন ভাঙার অধিকার কারো নেই

শুক্রবার , ১৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৭:৫০ পূর্বাহ্ণ
28

গত ২৩ মার্চ ২০১৯ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মদিন উপলক্ষে চট্টগ্রাম শিশু একাডেমীতে একটি আবৃত্তি প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। সেই প্রতিযোগিতায় সকল শিশুর সাথে অংশগ্রহণ করে সেন্ট মেরিস স্কুলের প্রথম শ্রেণিতে পড়ুয়া আরেক শিশু। নাম – শুভশ্রী চৌধুরী শ্রুতি। গত চারদিন আগে শিশু একাডেমী থেকে শুভশ্রীর পরিবারে ফোন করে বলেন আপনার মেয়ে ২৩ মার্চে অনুষ্ঠিত আবৃত্তি প্রতিযোগিতায় তৃতীয় হয়েছে। প্রথমে সে চতুর্থ হয়েছিল কিন্তু যে তৃতীয় হয়েছে তার ফরম হারিয়ে ফেলার কারণে তার সাথে যোগাযোগ রাখা সম্ভব হয়নি। তাই শুভশ্রী কে আমরা তৃতীয় হিসেবে তার নাম লিস্ট করলাম। ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৯ চট্টগ্রাম শিল্পকলা একাডেমীতে তাকে পুরস্কার দেওয়া হবে, আপনারা দুপুর ২.৩০ মধ্যে শিল্পকলা একাডেমীতে উপস্থিত থাকবেন। কিন্তু, আজ পুরস্কার এর দিন (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১ টায় শিশু একাডেমী থেকে শুভশ্রীর মাকে ফোন করে বলে যে মেয়েটা তৃতীয় হয়েছে তার মা গতকাল রাতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করে তাই শুভশ্রীর নামটা বাতিল হল।
আমার প্রশ্ন হল একজন শিশুর সাথে এইরকম ছল করা কি কোন নিয়মে আছে? ঐ বাচ্ছাটা (শুভশ্রী) যেদিন শুনেছিল সে পুরস্কার পাবে কি যে খুশি যা না দেখলে অনুভব করা যাবে না। প্রতিদিন কারণে অকারণে ফোন করে শুধু একটাই কথা আমি যখন পুরস্কার নেবো তখন তুমি আমার একটা ছবি তুলিও। কী সুন্দর স্বপ্ন। পুরস্কার নিয়ে তার স্বপ্ন বুনার কথা শুনতে শুনতে মনে হল যেন আমাদের সবার। মায়ের কাছে আবদার মা আজ আমি পুরস্কার নিব তাই স্কুলে যেতে পারব না। আজকে আমি অনেক সাজ করব। কি মজা হবে তাই না মা। কিন্তু পুরস্কার এর দিন যখন মায়ের কাছে ফোন আসল মা যখন ওকে জানালো যে তোমাকে পুরস্কার দেবে না। সেটা শুনে সে কি কান্না। এভাবে একজন শিশু স্বপ্ন ভাঙ্গার অধিকার কারো নেই। আমি এর তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
প্রিয়াংকা সরকার, চট্টগ্রাম

x