উত্তেজনা কমতেই সিনেমার নাম নিয়ে প্রতিযোগিতা

রবিবার , ৩ মার্চ, ২০১৯ at ১০:১৩ পূর্বাহ্ণ
120

ভারত নিয়ন্ত্রিত জম্বু-কাশ্মীর অঞ্চলের পুলওয়ামায় ঘটে জঙ্গি হামলার ঘটনা। তার জের ধরে ভারত-পাকিস্তানে গত কিছুদিন ধরে ছিল যুদ্ধের দামামা। এদিকে এ উত্তেজনা কমতেই বলিউডে হৈ চৈ পড়ে গেছে সিনেমা নির্মাণের। নাম নিয়ে চলছে কাড়াকাড়ি। বলিউডের প্রযোজক-পরিচালকদের মধ্যে শুরু হয়ে গেছে প্রতিযোগিতা। কার আগে কে বানাবেন এই হামলা নিয়ে সিনেমা।
আলোচিত বেশ কিছু শব্দকে ছবির নামের জন্য জুতসই মনে করছেন বলিউড-সংশ্লিষ্টরা। সেগুলোর মধ্যে রয়েছে ‘অভিনন্দন’ (পাকিস্তানে আটক ভারতীয় বৈমানিক), ‘বালাকোট’ (পাকিস্তানের শহর), ‘পুলওয়ামা’ শব্দগুলো। ইতিমধ্যে এসব শব্দযোগে অন্তত ১০টি ছবির নামের আবেদন জমা পড়েছে। সেগুলো হলো ‘পুলওয়ামা: দ্য টেরর অ্যাটাক’, ‘পুলওয়ামা অ্যাটাক ভার্সেস সার্জিক্যাল স্ট্রাইকস ২.০ ’, ‘সার্জিক্যাল স্ট্রাইক ২.০ ’, ‘বালাকোট’, ‘ওয়ার রুম’, ‘হিন্দুস্তান হামারা হ্যায়’, ‘দ্য অ্যাটাকস অব পুলওয়ামা’, ‘পুলওয়ামা টেরর অ্যাটাক’, ‘উইথ লাভ ফ্রম ইন্ডিয়া’, ‘এটিএস ওয়ান ম্যান শো’।
কয়েক দিন আগে‘উড়ি: দ্য সার্জিক্যাল স্ট্রাইক’ ছবিটি ব্যবসা করেছে প্রায় ২০০ কোটি রুপি। সুতরাং পুলওয়ামা হামলা নিয়ে ছবি করার জন্য আগাম নাম নিবন্ধন করতে রীতিমতো প্রতিযোগিতায় নেমে গেছেন প্রযোজক-পরিচালকেরা।
ছবি কবে তৈরি হবে, আদৌ হবে কি না, সেটা গুরুত্বপূর্ণ নয়। আগে নাম নিবন্ধন করে রাখতে মরিয়া হয়ে উঠেছেন ভারতের প্রযোজক-পরিচালকেরা। ইম্পার দপ্তরের এক কর্মী জানান, প্রযোজকেরা ছবির নাম তালিকাভুক্ত করার জন্য রীতিমতো প্রতিযোগিতা শুরু করে দিয়েছেন। জায়গায় দাঁড়িয়ে অনেকে আলোচনা করে আবেদন জমা দিচ্ছেন।
চলচ্চিত্র বা ওয়েব সিরিজের জন্য একটি নাম নিবন্ধন করতে প্রযোজনা সংস্থাগুলোকে ১৮ শতাংশ করসহ খরচ করতে হয় ২৫০ রুপি। ফলে এক একটি প্রযোজনা সংস্থা ৪ থেকে ৫টি করে ছবির নাম নিবন্ধন করছে। নামগুলো ব্যবহার করে তারা চলচ্চিত্র, ওয়েব সিরিজ নাকি টিভি অনুষ্ঠান বানাবেন, সেটাও ঠিক করে দেওয়ার সময় পাননি তাঁরা। সূত্রের ধারণা, পরে হয়তো নামগুলো বিক্রি করে দেবেন কোনো বড় প্রতিষ্ঠানের কাছে।

x