উচ্চশিক্ষায় গতানুগতিক ধারা পরিবর্তনের সময় এসেছে : সিআইইউ উপাচার্য ড. মাহফুজুল

বৃহস্পতিবার , ৮ নভেম্বর, ২০১৮ at ৭:৫৯ অপরাহ্ণ
59

চিটাগং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটি (সিআইইউ)-এর উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেছেন, ‘উচ্চশিক্ষায় গতানুগতিক ধারা পরিবর্তনের সময় এসে গেছে। আমরা ছাত্র-ছাত্রী ও অভিভাবকদের কাছে এমন একটি বিশ্বমানের শিক্ষা ছড়িয়ে দিতে চাই যেখানে আস্থার পাশাপাশি এই বিশ্ববিদ্যালয় সবার পরিবারের সদস্য হয়ে এগিয়ে যাবে।’

সিআইইউকে আন্তর্জাতিকভাবে তুলে ধরতে শিক্ষার গুণগত মানোন্নয়নে বিশ্ববিদ্যালয়টি নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বলেও জানান তিনি।

আজ বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সকালে নগরীর জামালখানে সিআইইউ ক্যাম্পাসের অডিটোরিয়ামে অনুষ্ঠিত বার্ষিক পারস্পরিক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

এই সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষক-কর্মকর্তা ও কর্মচারী সেখানে উপস্থিত ছিলেন। সিআইইউ’র সেন্টার ফর এক্সিলেন্স ইন টিচিং অ্যান্ড লার্নিং (সিইটিএল) এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

বৈঠকে প্রফেসর ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী সিআইইউকে একটি পরিবার উল্লেখ করে বলেন, ‘দক্ষ লোকবল নিয়োগ ও সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টির মাধ্যমে উচ্চশিক্ষার চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় কাজ করে যাচ্ছে এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান।’

তিনি আরও বলেন, ‘হাতে নেয়া পরিকল্পনাগুলো বাস্তবায়িত হলে আগামী দুই বছর পর এখানে বদলে যাবে শিক্ষার পুরোনো চেহারা। তাই বেশি বেশি গবেষণামূলক কার্যক্রমের দিকে এগিয়ে যেতে হবে শিক্ষকদের। দক্ষ জনশক্তি হয়ে গড়ে উঠতে হবে শিক্ষার্থীদেরও।’

সিআইইউতে সিভিক কালচার প্রতিষ্ঠা করার কথা তুলে ধরে দেশবরেণ্য শিক্ষাবিদ প্রফেসর ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, ‘আমাদের বেশি করে ইতিবাচক ভাবনায় ডুবে থাকতে হবে। একটি ভালো মানের বিশ্ববিদ্যালয় গড়ে উঠলে তার সুফল সবাই পাবে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এই প্রতিষ্ঠানে প্রশাসনিক ও অ্যাকাডেমিক দুই জায়গাতেই গতিশীলতা বজায় রাখতে হবে। তবে তার জন্য সৃজনশীলতা, দক্ষতা ও জ্ঞানের পরিধি বৃদ্ধি করার কোনো বিকল্প নেই।’

অ্যাসোসিয়েট প্রফেসর ড. আসিফ ইকবালের প্রাণবন্ত উপস্থাপনায় সিআইইউতে প্রথমবারের মতো আয়োজিত বার্ষিক পারস্পরিক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে সিনিয়র শিক্ষকদের মধ্যে বক্তব্য দেন স্কুল অভ সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের ডিন অধ্যাপক মোহাম্মদ রেজাউল হক খান, বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অভ লিবারেল আর্টস অ্যান্ড সোশ্যাল সায়েন্সের ডিন প্রফেসর কাজী মোস্তাইন বিল্লাহ, বিজনেস স্কুলের ডিন ড. মোহাম্মদ নাঈম আবদুল্লাহ, প্রক্টর প্রফেসর ড. নুরুল আবসার, বিজনেস স্কুলের উপদেষ্টা প্রফেসর ড. আইয়ুব ইসলাম প্রমুখ।

উপস্থিত ছিলেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক সরকার কামরুল মামুন, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার আনজুমান বানু লিমা, ফিন্যান্স অ্যান্ড অ্যাকাউন্টস শাখার ভারপ্রাপ্ত পরিচালক সালমা বেগম (এফসিএ), সিআইটিএস শাখার উপ-পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান চৌধুরী, অ্যাডমিন শাখার উপ-পরিচালক কুমার দোয়েল দে, লাইব্রেরিয়ান ড. মো. জিল্লুর রহমান প্রমুখ।

x