‘ইয়াবা ব্যবসা করে হাজী-গাজী কেউ রেহাই পাবে না’

টেকনাফ প্রতিনিধি

শনিবার , ১ জুন, ২০১৯ at ১০:৪০ পূর্বাহ্ণ
28

ইয়াবা ব্যবসা করে হাজী-গাজী কেউ রেহাই পাবে না বলে মন্তব্য করেছেন কঙবাজারের পুলিশ সুপার এবিএম মাসুদ হোসেন। গতকাল শুক্রবার বিকেলে টেকনাফ বাহারছড়া ইউনিয়নে মাদক নির্মূল ও প্রতিরোধ কমিটির কার্যালয় উদ্বোধনকালে তিনি এ কথা বলেন।
তিনি বলেন, বড় ছোট কথা নয়। কোনো ইয়াবা কারবারির রেহাই মিলবে না। সবাইকে আইনের আওতায় আনা হবে। সমাজে অনেক মুখোশধারী ইয়াবা ব্যবসায়ী রয়েছে। চলমান মাদক বিরোধী অভিযানে তারা রেহাই পাবে না। এ সময় ইয়াবায় অভিযুক্ত জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানান তিনি।
এ সময় মাদক নির্মূল কমিটির সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, সারা দেশে মাদকের জন্য টেকনাফের বদনাম রয়েছে। এর থেকে আমাদের মুক্তি পেতে হবে। বর্তমানে টেকনাফে মাদক ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে। এবারের এসএসসি পরীক্ষায় টেকনাফের ফলাফল দেখলেই তা বুঝা যায়। আপনারা মাদক নির্মূলে কাজ করুন। আমরা সব ধরনের সহযোগিতা দেব। তবে মাদকের সাথে জড়িত কোনো ব্যক্তি কমিটির সাথে যুক্ত থাকতে পারবে না।
এদিকে মাদক বিরোধী কমিটির শুরু থেকে কয়েকজন বিতর্কিত ব্যক্তি থাকলেও গতকাল তাদের পুলিশ সুপারের অনুষ্ঠানে তাদের দেখা যায়নি।
এ ব্যাপারে বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম জানান, যাচাই বাছাইয়ের মাধ্যমে ক্লিন ইমেজের ব্যক্তিদের নিয়ে মাদক নির্মূল ও প্রতিরোধ কমিটি গঠন করা হবে। এখানে বিতর্কিত মানুষের স্থান হবে না বলে তিনি জানান।
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. ইকবাল হোসাইন, উখিয়া টেকনাফ সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নাহিদ আদনান তাইয়ান, জেলা ডিএসবি শাখার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, টেকনাফ মডেল থানার ওসি প্রদীপ কুমার দাশ, বাহারছড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম প্রমুখ।

x