ইভান বুনিন : রুশ ঐতিহ্যের কথাকার

বৃহস্পতিবার , ৮ নভেম্বর, ২০১৮ at ৬:০৬ পূর্বাহ্ণ
14

রুশ কথাসাহিত্যের অন্যতম শ্রেষ্ঠ কথাকার ইভান বুনিন। সাহিত্য চর্চা করতেন ছেলেবেলাতেই। কৈশোরে কবিতা লিখতেন। তরুণ বয়সে কলম ধরেন গদ্যে। কবিতা ছাড়াও কল্পকাহিনি, স্মৃতিকথা, সমালোচনা, অনুবাদ ও গল্প-উপন্যাস লিখেছেন। আজ বুনিনের ৬৫তম মৃত্যুবার্ষিকী।
ইভান বুনিনের জন্ম ১৮৭০ সালের ১০ অক্টোবর রাশিয়ার এক অভিজাত পরিবারে। বাবা ছিলেন কিছুটা খামখেয়ালি। জুয়ার আসরে নিজের সম্পত্তি খুইয়ে সপরিবারে আশ্রয় নেন এক খামার বাড়িতে। এখানেই কাটে বুনিনের শৈশব ও কৈশোর। খামার বাড়ির বিচিত্র পরিবেশে নানা ধরনের মানুষের সাথে মিশে সমৃদ্ধ হয় তাঁর লেখার ঝুলি। এদিকে সংসারের ভগ্নদশা ক্রমেই প্রকট হতে থাকলে বুনিন বাড়ি ছেড়ে চলে যান। স্কুলের লেখাপড়া তিনি শেষ করেন নি। বাড়ি ছেড়ে বেড়িয়ে সংবাদপত্র অফিসে, পৌরসভায় কাজ করেছেন। তবে পড়েছেন প্রচুর। যা তাঁর লেখার রসদ জুগিয়েছে। বুনিন পুশকিন, গোর্কি, তুর্গেনেভ, চেখভ প্রমুখ বিশিষ্ট লেখকদের সান্নিধ্য পেয়েছিলেন। তাঁর রচনায় এঁদের প্রচ্ছন্ন প্রভাব লক্ষ করা যায়। কিন্তু তাঁর পরও বর্ণনায়, উপমায়, ভাষাশৈলীর অভিনবত্বে, কাহিনির ঔজ্জ্বল্য কিংবা বিষাদময়তায় বুনিন সবসময়ই অনন্য। তাঁর সাহিত্যকর্মের মধ্যে উপন্যাস: ‘দ্য ভিলেজ’, ‘ড্রাই ভ্যালি’; আত্মজীবনী : ‘দ্য লাইফ অব আর্সেনিভ’; গল্পগ্রন্থ: ‘ডার্ক এভিনিউজ’ ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য। ১৯৩৩ সালে বুনিন সাহিত্যে নোবেল পুরস্কার অর্জন করেন। জীবনের অনেকটা সময় তিনি ফ্রান্সে কাটিয়েছেন। কিন্তু স্বদেশের জন্যে সবসময় ছিল এক গভীর টান। তাঁর লেখায় সবসময় তিনি তুলে ধরেছেন রুশ ঐতিহ্য। ১৯৫৩ সালের ৮ নভেম্বর ফ্রান্সের প্যারিসে মৃত্যু হয় বুননের।

x