আ জ ম নাছির ফেরার পর নগর আ. লীগের সাংগঠনিক কার্যক্রম

আজ দলীয় কার্যালয়ে যাবেন মাহতাব

আজাদী প্রতিবেদন

বুধবার , ২৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ at ৩:৪৩ পূর্বাহ্ণ
905

চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সদ্য প্রয়াত সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর মৃত্যুতে শূন্যপদে মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়া হলেও দলের সাধারণ সম্পাদক দেশের বাইরে থাকায় পরবর্তী করণীয় নির্ধারণে তার দিকেই চেয়ে আছেন নেতাকর্মীরা। দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতির (ভারপ্রাপ্ত) মতো গুরুত্বপূর্ণ পদে মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীকে দায়িত্ব দিলেন তখন দলের অপর শীর্ষনেতা (সাধারণ সম্পাদক) দেশের বাইরে। যার কারণে ভারপ্রাপ্ত সভাপতিকে নিয়ে পরবর্তী কি কি কর্মসূচি নেয়া হবে, কিভাবে নগর আওয়ামী লীগের সদ্য প্রয়াত সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর বিশাল শূণ্যতা কাটিয়ে দলের সাংগঠনিক অবস্থান ধরে রাখা হবে তা নিয়ে আলোচনা চলছে তৃণমূলের নেতাকর্মীদের মধ্যে। নগর আওয়ামীলীগের কয়েকজন শীর্ষ নেতার সাথে কথা হলে তারা জানান, দলের সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন দেশে ফেরার পর প্রতিটি ওয়ার্ডে এবং থানায় সম্মেলনের মাধ্যমে দলকে গুছিয়ে তোলা হবে।
গত ২৩ ডিসেম্বর দলের প্রেসিডিয়ামের সভায় আওয়ামীলীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী নগর আওয়ামীলীগের প্রথম সহ সভাপতি মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীকে ভারপ্রাপ্ত সভাপতির দায়িত্ব দেয়ার খবরে নগর আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আজম নাছির উদ্দিনের অনুসারীরা বেশ উৎফুল্ল। তবে খবর নিয়ে জানা গেছে, সদ্য প্রয়াত নগর আওয়ামীলীগের সভাপতি এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরীর অনুসারীদের অনেকেই এখনো পর্যন্ত ভারপ্রাপ্ত সভাপতির সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করতে যাননি। তারা দলের পরবর্তী পদ েপের দিকে তাকিয়ে আছেন বলে জানা গেছে।
নগর আওয়ামীলীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক গতকাল আজাদীকে জানান, মাহতাব ভাইকে (মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী) ভারপ্রাপ্ত সভাপতি করার চিঠি (কেন্দ্রের) আজ (গতকাল মঙ্গলবার) আমি পেয়েছি। দলের দপ্তর সম্পাদক ড. আবদুস সোবহান গোলাপ এই চিঠি প্রেরণ করেছেন। সাধারণ সম্পাদক আ জ ম নাছির উদ্দিন আগামী ৩ ডিসেম্বর দেশে ফিরবেন। তারপর পরবর্তী করণীয় ঠিক করা হবে।
আজ দলীয় কার্যালয়ে যাবেন মাহতাব উদ্দিন
চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর আজ বুধবার সকাল ১০ টায় মাহতাব উদ্দিন চৌধুরী দারুল ফজল মার্কেটস্থ সংগঠনের কার্যালয়ে যাবেন এবং সেখানে তিনি বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পমাল্য অর্পণ করবেন। এরপর তিনি মুক্তিযুদ্ধকালীন বিএলএফ এর পূর্বাঞ্চলীয় উপ অধিনায়ক সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব জহুর আহমেদ চৌধুরীর কবরে পুষ্পমাল্য অর্পণ ও জেয়ারত করবেন। পরে সাবেক মন্ত্রী ও চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি মরহুম এম এ মান্নান, সাবেক মেয়র বীর মুক্তিযোদ্ধা সদ্য প্রয়াত চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ বি এম মহিউদ্দিন চৌধুরী এবং সাবেক সাধারণ সম্পাদক বীর মুক্তিযোদ্ধা কাজী ইনামুল হক দানুর কবর জেয়ারত ও দোয়া মাহফিলে অংশ নেবেন। উপরোক্ত কর্মসূচি সমূহে মহানগর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ও অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের উপস্থিত থাকার জন্য মহানগর আওয়ামী লীগের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আহ্বান জানানো হয়েছে।
গতকাল সকালেও মাহতাব উদ্দিন চৌধুরীর বাস ভবনে যান দলীয় নেতাকর্মীরা। তারা তাঁকে ফুলেল শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানান। এসময় উপস্থিত ছিলেন মহানগর আওয়ামী লীগের অন্যতম সহ-সভাপতি আলহাজ্ব নঈম উদ্দিন চৌধুরী, এড. সুনীল কুমার সরকার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম চৌধুরী, এম এ রশিদ, আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আলহাজ্ব শফর আলী, শেখ মো: ইসহাক, সাংগঠনিক সম্পাদক শফিক আদনান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক শফিকুল ইসলাম ফারুক, আইন সম্পাদক এডভোকেট ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক চন্দন ধর, বন ও পরিবেশ সম্পাদক মশিউর রহমান চৌধুরী, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক মাহবুবুল হক মিয়া, উপ প্রচার সম্পাদক শহীদুল আলম, কার্যনির্বাহী সদস্য আবুল মনসুর, গৌরাঙ্গ চন্দ্র ঘোষ, বখতেয়ার উদ্দিন খান, আবদুল লতিফ টিপু, জাফর আলম চৌধুরী, নেছার উদ্দিন মনজু, গাজী শফিউল আজিম, থানা আওয়ামী লীগের আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর চৌধুরী সিইনসি স্পেশাল, আলহাজ্ব ফিরোজ আহমেদ, সিদ্দিক আলম, কাজী আলতাফ হোসেন, আলহাজ্ব সাহাব উদ্দিন আহমেদ, অধ্য আসলাম হোসেন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের আবুল বশর, মোজাহেরুল ইসলাম, আবদুর রহমান, সলিম উল্লাহ বাচ্চু, গিয়াস উদ্দিন জুয়েল, আবদুল মান্নান চৌধুরী, ফয়েজ উল্লাহ বাহাদুরসহ বিভিন্ন ওয়ার্ড এবং থানা অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

x