আল্লামা রুমি সোসাইটির সেমিনারে বক্তারা

অসাম্প্রদায়িক সমাজ প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন সৈয়দ আহমদুল হক

শনিবার , ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৪:১৪ পূর্বাহ্ণ
56

আল্লামা রুমি সোসাইটি বাংলাদেশের উদ্যোগে বাংলার রুমি ও সুফী সাধক সৈয়দ আহমদুল হক (রহ.)’র ৮ম ওফাত বার্ষিকী স্মরণে গত ৫ সেপ্টেম্বর লালখান বাজারস্থ রুহ আফজা কুটির-এ ‘অসাম্প্রদায়িক চেতনার রূপকার বাংলার রুমি সৈয়দ আহমদুল হক’ শীর্ষক সেমিনার ও আলোচনা সভা সংগঠনের উপদেষ্টা সৈয়দ মাহমুদুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হয়।
এতে প্রধান অতিথি ছিলেন চিটাগাং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. নূরে আলম। বিশেষ অতিথি ছিলেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের অধ্যাপক ড. এম শফিউল আলম, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফারসি ভাষা ও সাহিত্য বিভাগের অধ্যাপক ড. কে.এম. সাইফুল ইসলাম খান, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের পালী বিভাগের অধ্যাপক ড. জীনবোধী ভিক্ষু, চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ জাহিদুর রহমান। এড. সৈয়দ মো. ইমরান খানের সঞ্চালনায় সেমিনারে স্বাগত বক্তব্য দেন আল্লামা রুমি সোসাইটির মহাসচিব সৈয়দ মোহাম্মদ সিরাজদৌল্লাহ। অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দা খুজিস্তা মাহমুদ, সংস্কৃতি কর্মী সিরাজুল মোস্তফা, এসডিজি ইয়ূথ ফোরামের সভাপতি নোমান উল্লাহ বাহার, সম্মিলিত সামাজিক সংগঠন পরিষদের সভাপতি ওসমান ফারুকী হিমাদ্রী ও কবি মিফতাহুল ইসলাম প্রমুখ।
সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিআইইউ উপাচার্য প্রফেসর ড. মাহফুজুল হক চৌধুরী বলেন, বাংলার রুমি খ্যাত সৈয়দ আহমদুল হক-এর দর্শনের সাথে, রবীন্দ্রনাথ, নজরুল, হাফেজ, খাইয়াম, ফেরদৌসি, সাদী, কালিদাস, শেক্সপীয়র এবং মাইকেল প্রমুখ শ্রেষ্ঠ কবি-সাহিত্যিকদের দর্শনের মিল রয়েছে। তাঁরা সকলেই প্রেম দর্শনের মাধ্যমে সমগ্র বিশ্বে আজও খ্যাতিমান। সৈয়দ আহমদুল হকের ব্যক্তিগত জীবনাচরণ এবং চিন্তা রাজ্যে ছিলেন একান্ত অসামপ্রদায়িক। মাওলানা রুমির আধ্যাত্মিক প্রেমের শিক্ষাগুরু ছিলেন শামস তাবরিযি একইভাবে সৈয়দ আহমদুল হক-এর প্রেমের শিক্ষাগুরু ছিলেন মাওলানা জালাল উদ্দিন রুমি। তারা সকলেই ছিলেন মানব প্রেমিক সাধক। তাঁর স্বপ্ন ছিল জাতি, ধর্ম, বর্ণ, গোত্র নির্বিশেষে সকলের সমন্বয়ে একটি প্রেমময়, উদার, শান্তিপূর্ণ এক অসাম্প্রদায়িক সমাজ প্রতিষ্ঠা।
বক্তারা আরো বলেন, সৈয়দ আহমদুল হক (রহ.) ছিলেন একজন আলোকিত মরমী গবেষক, প্রজ্ঞাবান ব্যক্তিত্ব এবং অসামপ্রদায়িক সমাজ নির্মাণের স্বপ্নদ্রষ্টা। বিস্ময়কর ধীশক্তি সম্পন্ন প্রতিভাবান এ মনীষী নিজস্ব যোগ্যতা, বস্তুনিষ্ঠ গবেষণা ও সাহিত্য সম্ভারের মাধ্যমে সুফিবাদী ভক্ত, অনুরক্ত ও গবেষকদের জন্য এক বিশাল ভুবন সৃষ্টি করেছেন। তিনি জ্ঞান সাধনা ও অনুশীলনের পথে এক প্রবহমান নদী ও ঝর্ণাধারা। সৈয়দ আহমদুল হক (রহ.) জীবন ও কর্ম বর্তমান ও ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য অনুস্মরণীয়। প্রেস বিজ্ঞপ্তি।

x