আমাদের সুদিন কবে আসবে ?

সোমবার , ৫ নভেম্বর, ২০১৮ at ৩:২৬ অপরাহ্ণ
11

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে সব কিছু আছে শুধুমাত্র কর্মচারীদের মুখে হাসি ছাড়া। এটা দীর্ঘদিন ধরে চলে আসছে। কত কর্মচারী অনাহারে, অর্ধাহারে, বিনা চিকিৎসায়, ধুঁকে ধুঁকে মৃত্যুবরণ করেছেন, তার কোন হিসাব কর্তৃপক্ষের নেই। কর্তৃপক্ষের খামখেয়ালী ও অবহেলার শিকার হয়ে অনেক কর্মচারী বেঁচে থাকার আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছে। তারা প্রতিবাদ করতেও ভুলে গেছে। তারা কাঁদতেও ভুলে গেছে। তারা কষ্ট পেতে পেতে পাথর হয়ে গেছে। কর্তৃপক্ষ আছেন, প্রশাসন আছেন, মাননীয় মেয়র মহোদয় আছেন, কিন্তু আমরা যারা কর্মচারী আমাদের দুঃখ বোঝার কেউ নেই। তাইতো আমাদের এত দুঃখ কষ্ট দেখেও তিনি সম্পূর্ণ নির্বিকার, যেন কিছু হয়নি। আসলে উনি জানেন না একবেলা না খেয়ে থাকার কি কষ্ট, কি যন্ত্রণা। অথচ চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনে আমাদের নিয়োগ প্রদান করা হয়েছিল যথাযথ নিয়ম অনুসরণ করে, লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে। দীর্ঘ-আঠার বছর চাকরি করার পরও আমাদের চাকরি স্থায়ীকরণ না করে সামান্য বেতন দিয়ে নির্ধারিত করে রাখা হয়েছে যা অত্যন্ত দুঃখের ও পরিতাপের। শুধু তাই নয়, আমাদেরকে সরকার প্রদত্ত সকল সুযোগ সুবিধা থেকেও বঞ্চিত করা হয়েছে। আমরা এ অবস্থার দ্রুত পরিবর্তন চাই। আমাদের পিঠ দেয়ালে ঠেকে গেছে। যদি মেয়র মহোদয় দ্রুত কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করেন তাহলে আমাদেরকে ভিক্ষার পাত্র নিয়ে রাস্তায় বসে পড়া ছাড়া আর কোন উপায় থাকবে না।
– প্রিয়াংকা মুৎসুদ্দী, আমবাগান, রেলওয়ে, পাহাড়তলী, চট্টগ্রাম।

x