আবেদনের শেষ দিন আজ

একাদশে ভর্তি

আজাদী প্রতিবেদন

বৃহস্পতিবার , ২৩ মে, ২০১৯ at ৩:০৭ পূর্বাহ্ণ
170

গত ১২ মে থেকে শুরু হওয়া একাদশে ভর্তিতে অনলাইনে আবেদন প্রক্রিয়া আজ শেষ হচ্ছে। আজ (২৩ মে) রাত ১২টা পর্যন্ত ওয়েবসাইট ও মুঠোফোনে এসএমএস’র মাধ্যমে এ আবেদন করা যাবে। তবে পুনঃনিরীক্ষায় ফল পরিবর্তন হলে সেক্ষেত্রে ৩ ও ৪ জুন পুনরায় আবেদন করার সুযোগ পাবে ফল পরিবর্তন হওয়া শিক্ষার্থীরা। আগামী ১ জুন পুনঃনিরীক্ষণের ফল প্রকাশ করা হবে বলে জানিয়েছেন চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মোহাম্মদ মাহবুব হাসান। আর পুনঃনিরীক্ষণে ফল পরিবর্তন হলে পরিবর্তিত ফলাফল স্বয়ংক্রিয় (অটোমেটিক) ভাবে ভর্তি সংক্রান্ত তথ্য ভাণ্ডারে হালনাগাদ (আপডেট) হয়ে যাবে বলেও জানিয়েছেন পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক।
এদিকে, এবার আবেদনের সময় থেকে ৫ জুন পর্যন্ত কলেজের পছন্দক্রম পরিবর্তনের সুযোগ পাবে শিক্ষার্থীরা। যাচাই-বাছাই শেষে ১০ জুন প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিতদের ফল প্রকাশ করা হবে। প্রথম পর্যায়ে মনোনীত শিক্ষার্থীদের নিশ্চায়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে ১১ জুন থেকে ১৮ জুনের মধ্যে। নিশ্চায়ন না করলে ওই শিক্ষার্থীর মনোনয়ন এবং আবেদন বাতিল বলে গণ্য হবে। শিক্ষার্থী কর্তৃক নিশ্চায়ন শেষে ১৯ জুন থেকে ২০ জুন ২য় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে। পছন্দক্রম অনুযায়ী প্রথম মাইগ্রেশনের ফল এবং ২য় পর্যায়ের আবেদনের ফল প্রকাশ করা হবে ২১ জুন। ২১ জুনের ফলাফলে মনোনীতদের নিশ্চায়ন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে ২২ ও ২৩ জুন। এরপর ৩য় পর্যায়ের আবেদন গ্রহণ করা হবে ২৪ জুন। ২য় মাইগ্রেশনের ফল এবং ৩য় পর্যায়ের ফল প্রকাশ করা হবে ২৫ জুন। ৩য় পর্যায়ে মনোনীতদের নিশ্চায়ন শেষ করতে হবে ২৬ জুন। ২৭ জুন থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম চলবে। আর ভর্তি কার্যক্রম শেষে ১ জুলাই থেকে ক্লাস শুরু হবে।
তবে আবেদনের ক্ষেত্রে কলেজের পড়ালেখার মান-পরিবেশ, বাসা থেকে দূরত্ব এবং মাসিক বেতনসহ যাবতীয় খরচের বিষয়টি যাচাই-বাছাই করে কলেজের পছন্দক্রম ঠিক করার পরামর্শ দিয়েছেন বোর্ডের কলেজ পরিদর্শক প্রফেসর জাহেদুল হক। দোকানের কম্পিউটার অপাটেরদের ইচ্ছে অনুযায়ী কলেজের পছন্দক্রম না দিতেও শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন তিনি। এছাড়াও কোটার স্বপক্ষে যথাযথ কাগজপত্র থাকার বিষয়টি নিশ্চিত হলেই কেবল কোটায় আবেদন করার পরামর্শ দিয়ে কলেজ পরিদর্শক বলেন, দেখা গেলো, কেউ একজন কোটায় আবেদন করেছে। আবেদন করায় কোটায় ভর্তির জন্য ওই শিক্ষার্থী মনোনীত হলেও যথাযথ কাগজপত্র দেখাতে না পারলে কলেজ কর্তৃপক্ষ ভর্তি করাবে না। এতে করে সংশ্লিষ্ট শিক্ষার্থীর ভর্তি ঘিরে সংশয় দেখা দিবে। তাই আবেদনের ক্ষেত্রে যাবতীয় বিষয় যাচাই-বাছাই করে তবেই আবেদন করতে হবে।
আর ৫ জুন পর্যন্ত কলেজ ও পছন্দক্রম পরিবর্তনের সুযোগ থাকায় সেটি কাজে লাগানোর পরামর্শ দিয়েছেন শিক্ষাবোর্ড চেয়ারম্যান প্রফেসর শাহেদা ইসলাম। কলেজের বেতন-ফিসহ সবকিছু যাচাই-বাছাই করে আবেদনে কলেজ ও পছন্দক্রম ঠিক করার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।
গত কয়েক বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও ভর্তি সংক্রান্ত ওয়েবসাইট (www.xiclassadmission.gov.bd) এর মাধ্যমে আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে হবে ভর্তিচ্ছুদের। আর কোন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান অনলাইন প্রক্রিয়ার বাইরে ম্যানুয়াল বা নিজেদের ইচ্ছে মতো অন্য কোন প্রক্রিয়ায় শিক্ষার্থী ভর্তি করতে পারবে না।

x