আবহাওয়া বুঝেই সাজ

তাসনিম লিপি

রবিবার , ১৬ জুন, ২০১৯ at ৬:০৭ পূর্বাহ্ণ
32

মানুষ মাত্রই সৌন্দর্যের পূজারি! নিজেকে সুন্দর দেখাতে কে না চায়? আর তা যদি হয় বিশেষ কোনো অনুষ্ঠানকে ঘিরে, তাহলে তো কথাই নেই! বিশেষ করে আমরা মেয়েরা যারা বিভিন্ন্‌ অনুষ্ঠান নিয়ে একটু বেশিই উৎসাহী থাকি। হালের ফ্যাশন-ট্রেন্ডের সাথে তাল মিলিয়ে আপাদমস্তক নিজেকে সাজাতেই যেন আমরা স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করি!
ঈদ পরবর্তী বিভিন্ন অনুষ্ঠানকে ঘিরে আমাদের মাঝে শুরু হয়ে গেছে সাজ-সজ্জা ও নিজেকে পরিপাটি করে তোলার সব প্ল্যান-পরিকল্পনা। তাছাড়া নিজেকে সাজাতে কে না ভালোবাসে! তবে, সময়টা যেহেতু প্রখর রোদ আর প্রচণ্ড গরমের, তাই হালকা সাজই ভরসা।
যেভাবে সাজা যায়
ফাউন্ডেশন (বেস মেকআপ) : ফর্সা বা কালো যেকোনো ত্বকেই মেকআপের প্রথম ধাপ হচ্ছে ফাউন্ডেশন। যাকে বলা হয় মেকআপের ভিত্তি। প্রথমেই, মুখ ধুয়ে ত্বকের উপযোগী ক্লিনজিং, টোনিং বা ময়েশ্চারাইজার দিন। এরপর দিতে পারেন প্রাইমার। প্রাইমার ত্বককে সুরক্ষা দেয় ও মেকআপ দীর্ঘক্ষণ ধরে রাখে। তারপর ত্বকের ধরন ও রঙ বুঝে তৈলাক্ত নয় এমন পানি সমৃদ্ধ তরল ফাউন্ডেশন দিন। চেহারায় কোনো দাগ বা চোখের নিচে ডার্ক সার্কেল থাকলে কনসিলার ব্যবহার করতে পারেন। এতে আপনার দাগ ঢাকা পড়বে এবং ত্বককে দেখাবে নিখুঁত ও ন্যাচারাল। ফাউন্ডেশন সেট করতে ব্যবহার করুন হালকা কোনো লুজ পাউডার। এতে আপনার মেকআপ ফেটে না গিয়ে দীর্ঘস্থায়ী হবে।
চোখের মেকআপ
বলা হয়, সুন্দর করে চোখ সাজানোও যেন একধরনের শিল্প! ভালো করে চোখ সাজাতে পারলে মেকআপ অনেক বেশি পরিপাটি মনে হয়। ড্রেসের সাথে মিলিয়ে চোখের পাতায় যেকোনো হালকা রঙের শেড এবং আউটার কর্নারে শিমারি শেড লাগিয়ে ভালোভাবে ব্লেন্ড করে নিতে পারেন। এরপর আইলাইনার ও মাশকারা দিয়ে তৈরি করতে পারেন খুব সুন্দর সিম্পল ক্লাসি আই লুক!
তবে, যাদের আইলেশ বড় তারা কালো মাশকারা এড়িয়ে চলুন। চোখের নিচে হালকা কাজলের ব্যবহার নিয়ে আসতে পারে এক অপূর্ব স্নিগ্ধতা!
লিপস্টিক
মেকআপ এর একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ হচ্ছে লিপস্টিক। লিপস্টিক ছাড়া পুরো মেকআপ লুকটাই যেন ব্যর্থ! লিপস্টিক ব্যবহারের সময় লিক্যুইড, গ্লসি বা শিমারি লিপস্টিক ব্যবহার না করে বরং ম্যাট লিপস্টিক ট্রাই করুন। পছন্দের তালিকায় থাকতে পারে হালকা গোলাপি, বেগুনি, বাদামি, চকোলেট, কফি, গোল্ডেন শেড অর্থাৎ যেকোনো হালকা রং বা ন্যুড কালার ব্যবহার করুন। মোটকথা, ত্বকের রঙের সাথে মিলিয়ে লিপস্টিকের শেড বাছাই করাই শ্রেয়।
ব্লাসন
সাজের সর্বশেষ ধাপ হচ্ছে ব্লাসন। ব্লাসন ছাড়া যেন সাজ অপরিপূর্ণ! তাই মেকআপে ব্লাসন ব্যবহারের সময় ত্বকের রং বুঝে ব্যবহার করুন।
সর্বোপরি মনে রাখতে হবে, আপনার গায়ের রঙ যেমনই হোক না কেন সুন্দর ও পরিপাটি করে সাজলে যে কেউ হয়ে উঠবেন অপরূপা! তবে সাজ অবশ্যই হওয়া চায় আবহাওয়া ও পরিবেশ পরিস্থিতিকে মাথায় রেখে।

x