আনোয়ারায় দুদিনের বৈশাখী মেলা ও বর্ষবরণ উৎসব

আনোয়ারা প্রতিনিধি

রবিবার , ১৪ এপ্রিল, ২০১৯ at ৭:৩৯ পূর্বাহ্ণ
21

বাংলা নববর্ষ ১৪২৬ বরণ উপলক্ষে আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগ ও উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে দিনব্যাপী পৃথক কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছে। কর্মসূচির মধ্যে রয়েছে মঙ্গল শোভাযাত্রা, পান্তা ইলিশ উৎসব, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা। আজ রবিবার সকালে ভূমিমন্ত্রী আলহাজ্ব সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন। তাছাড়া গতকাল শনিবার থেকে আনোয়ারা সদর ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ইছামতি মেলা শুরু হয়েছে। বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছাড়াও তরুণ তরুণীদের ভীড়ে মেলা মুখরিত। সেই সাথে উপজেলার বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বড় বাজার, পারকি সমুদ্র সৈকতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠন বাংলা নববর্ষ উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠান পালন করবে। পাশাপাশি পুলিশী নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।
আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অধ্যাপক এম এ মান্নান চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক এম এ মালেক জানায়, বাংলা নববর্ষ পহেলা বৈশাখ উদযাপন উপলক্ষে আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগ দিনব্যাপী কর্মসূচি পালন করবে। সকালে র‌্যালি, পান্তা উৎসব, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। আনোয়ারা সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ভূমি মন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাবেদ এমপি অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করবেন। আনোয়ারা উপজেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ যুবলীগ, শ্রমিকলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ, মহিলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও অঙ্গসংগঠনের নেতৃবৃন্দ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থাকবেন।
আনোয়ারা উপজেলা নির্বাহী অফিসার শেখ জোবায়ের আহম্মদ আজাদীকে জানায়, বৈশাখ আমাদের বাঙালি জাতির সত্ত্বার প্রতীক। বাংলার ঐতিহ্য ধরে রাখতে প্রতিবছর পহেলা বৈশাখ ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনায় পালন করা হয়। তারই ধারাবাহিকতায় আনোয়ারা উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে পান্তা উৎসব, মঙ্গল শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান ও আলোচনা সভা আয়োজন করা হয়েছে।
বাংলা নববর্ষ উদযাপন উপলক্ষে প্রতি বছরের ন্যায় আনোয়ারা সদর ইউনিয়ন পরিষদ আয়োজিত দুই দিনব্যাপী ইছামতি মেলা গতকাল শনিবার থেকে আনোয়ারা আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে শুরু হয়েছে। মেলায় নাগরদোলা, হস্তশিল্প, প্রশাধনী ও নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষপত্র বেচাকেনার ধুম পড়েছে। মেলার মূল আকর্ষণ নাগরদোলা। উঠতি বয়সের তরুণ তরুণীরা নাগরদোলা কেন্দ্রিক নিজেদের মাতিয়ে রেখেছে। আনোয়ারা সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অসীম কুমার দেব জানায়, বাঙালির হাজার বছরের ঐতিহ্য ধরে রাখতে ইউনিয়ন পরিষদের উদ্যোগে মেলার আয়োজন করা হয়েছে। মেলা ঘুরে হস্তশিল্প ব্যবসায়ী বদন দাশের কাছে জানতে চাইলে বলেন, প্রতিবছর মেলায় তিনি বিভিন্ন হস্তশিল্প বিক্রি করেন। এবছরও বেশ ভালো বেচাকেনা হয়েছে।
শুধু তাই নয় বৈশাখকে ঘিরে আনোয়ারা রুস্তমহাট, আনোয়ারা সদর, চাতরী চৌমুহনী বাজার, বন্দর সেন্টার, সরকার হাট, মালঘর বাজার সহ বড় বড় বাজারের বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানেও বৈশাখ আয়োজনের ধুম পড়েছে। আনোয়ারা সদরের সাবেক চেয়ারম্যান সুশীল ধর আজাদীকে জানায়, বৈশাখ মানে বাঙালির চেতনার উৎসব। এ দিনটির জন্য আমরা প্রতিবছর অধির আগ্রহে অপেক্ষা করি। যুগ যুগ ধরে বংশানুক্রমে দিনটি পালন করে আসছি। নিচক ব্যবসায়িক চিন্তা-চেতনা থেকে নয় পারিবারিকভাবেও এ দিনটি পালনে ব্যাপক প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। এতে অতিথি আপ্যায়ন, মিষ্টান্ন বিতরণের পাশাপাশি গ্রাম বাংলার ঐতিহ্য খই, মোয়া ও চিড়া আপ্যায়নের আয়োজন করা হয়েছে।
আনোয়ারা থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মাহবুব মিলকী জানায়, বৈশাখ উপলক্ষে যে কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে পুলিশী নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।

x