আধুনিক উচ্চশিক্ষার স্বপ্ন পূরণে যুক্তরাষ্ট্র

রীমা বড়ুয়া

শনিবার , ৯ মার্চ, ২০১৯ at ১০:৫৫ পূর্বাহ্ণ
224

উচ্চশিক্ষার জন্য যারা বিদেশ যাওয়ার স্বপ্ন দেখেন তাদের পছন্দের তালিকার শীর্ষে আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র তথা আমেরিকা। এর কারণ হলো সেটি অন্যতম একটি উন্নত ও আধুনিক দেশ। দেশে এইচএসসি অর্থাৎ উচ্চ মাধ্যমিক সম্পন্ন করার পর তাদের এই স্বপ্ন দেখার আরেকটি কারণ হলো যুক্তরাষ্ট্র উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে রয়েছে শীর্ষস্থানে। যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চশিক্ষায় আগ্রহীদের অনেকেরই কীভাবে সেদেশে ভালো একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হবেন, পড়াশোনা ও থাকা-খাওয়ার খরচের দিক দিয়ে তার জন্য কোন কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়টি বেছে নেয়া সঠিক হবে কিংবা ভিসা পাওয়ার জন্য কী কী কাগজপত্র কীভাবে জমা দিলে ভিসা পাওয়ার সম্ভাবনা বেশি এ বিষয়গুলো জানা থাকে না। অথচ সঠিক দিকনির্দেশনা পেলে উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়া অনেক সহজ হয়ে যাবে।
যুক্তরাষ্ট্রে কেন পড়বেন
আপনি আপনার উচ্চশিক্ষার জন্য যুক্তরাষ্ট্রকে কেন বেছে নেবেন সেই কারণগুলোর মধ্যে আছে ১. মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কোনো কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের ডিগ্রি বিশ্বের যেকোনো দেশে বেশি গ্রহণযোগ্য। ২. বর্তমান বিশ্বের সেরা অনেকগুলো কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ই রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। ৩. যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চশিক্ষিত ও দক্ষ লোকদের মূল্যায়ন সবসময়ই বেশি এবং এর শ্রমবাজারও অনেক বড়। ৪. যুক্তরাষ্ট্রে রয়েছে উন্নত উচ্চশিক্ষার পাশাপাশি উন্নত জীবনযাত্রা।
যখন ভর্তি হওয়া যাবে
আমেরিকায় সাধারণত বছরে ২ সেমিস্টারে নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি করানো হয়ে থাকে। সেমিস্টারগুলো হলো ফল সেমিস্টার ও স্প্রিং সেমিস্টার। ফল সেমিস্টার শুরু হয় আগস্ট মাসে আর স্প্রিং সেমিস্টার জানুয়ারিতে। ফল সেমিস্টারে ভর্তি হওয়ার জন্য অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর কখনও কখনও জানুয়ারি পর্যন্তও আবেদন করা যায়। আর স্প্রিং সেমিস্টারে আবেদন করা যায় জুলাই থেকে অক্টোবর পর্যন্ত। তবে ভর্তি হওয়ার জন্য আবেদন করার এ সময়গুলো বিশ্ববিদ্যালয়ের ওপর ভিত্তি করে আলাদা আলাদা হতে পারে।
যেভাবে আবেদনপত্র তৈরি করবেন
যুক্তরাষ্ট্রের কোনো কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য আবেদনপত্র তৈরি করা এবং এর জন্য প্রয়োজনীয় সময় ব্যয় করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি ব্যাপার। যুক্তরাষ্ট্রের ভালো শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ভর্তির সম্পূর্ণ প্রক্রিয়াটি প্রতিযোগিতাপূর্ণ। তাই তাড়াহুড়ো করে যেনতেনভাবে কাগজপত্র দিয়ে কোনো রকমে আবেদনপত্র পাঠিয়ে দেয়া ঠিক হবে না। এর জন্য যথেষ্ট সময় হাতে রেখে, পরিকল্পনা করে, বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়ম-কানুন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বিবেচনা করে এবং সর্বোপরি সঠিক দিকনির্দেশনা মেনে অভিজ্ঞ কারো সহায়তা নিয়ে তবেই আবেদন করা হবে বুদ্ধিমানের কাজ।
সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে সেরা বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে আছে ম্যাসাচুসেটস ইন্সটিটিউট অভ টেকনোলজি, স্ট্যানফোর্ড ইউনিভার্সিটি, হার্ভার্ড ইউনিভার্সিটি, কর্নেল ইউনিভার্সিটি, ইয়েল ইউনিভার্সিটি, কলাম্বিয়া ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অভ পেনসিলভানিয়া, ইউনিভার্সিটি অভ মিশিগান, ক্যালিফোর্নিয়া ইন্সটিটিউট অভ টেকনোলজি, ইউনিভার্সিটি অভ শিকাগো, প্রিন্সটন ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অভ ওয়াশিংটন, জন্স হপকিন্স ইউনিভার্সিটি, নিউ ইয়র্ক ইউনিভার্সিটি, কার্নেগি মেলন ইউনিভার্সিটি, ডিউক ইউনিভার্সিটি, নর্থওয়েস্টার্ন ইউনিভার্সিটি, ব্রাউন ইউনিভার্সিটি, রাইস ইউনিভার্সিটি, ওহিও স্টেট ইউনিভার্সিটি, বস্টন ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অভ পিটসবার্গ, মিশিগান স্টেট ইউনিভার্সিটি, ইউনিভার্সিটি অভ মিনেসোটা ইত্যাদি।
পড়তে পারবেন যেসব বিষয়ে
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে যেসব বিষয়ে আপনি উচ্চশিক্ষা নিতে পারবেন সেগুলোর মধ্যে আছে এপ্লায়েড সায়েন্সেস, এভিয়েশন, বায়োলজি এন্ড লাইফ সায়েন্সেস, কিউলিনারি আর্টস, ইকোনমিক্‌স, ইঞ্জিনিয়ারিং, রসায়নবিদ্যা, কমপিউটার এনিমেশন, কমপিউটার সায়েন্স, ফাইন আর্টস, ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস, সাংবাদিকতা, আইন, ম্যানেজমেন্ট, মার্কেটিং, মেডিসিন, ভিডিও গেম ডেভেলপমেন্ট, একাউন্টিং, এগ্রিকালচার, ফ্যাশন, ফিন্যান্স সহ অসংখ্য বিষয়।
ইমিগ্রেশন বিষয়ক দেশের অন্যতম প্রাচীন প্রতিষ্ঠান ঐতিহ্যবাহী ‘কাজী ইমিগ্রেশন এন্ড এডুকেশন’ এ পর্যন্ত অনেক শিক্ষার্থীকে উচ্চশিক্ষা গ্রহণের জন্য মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সহ বিশ্বের বিভিন্ন উন্নত দেশে পাঠিয়েছে। এ প্রতিষ্ঠানে চুক্তি করা হয় সম্পূর্ণ অগ্রিমবিহীন। কাজী ইমিগ্রেশন এন্ড এডুকেশন ও এনপিএল-এর চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট ইমিগ্রেশন এঙপার্ট কাজী মো. আবদুর রহমান স্যার বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্রের মতো অতি উন্নত একটি দেশে পড়তে যেতে পারাটা অবশ্যই সৌভাগ্যের ব্যাপার। এর কারণ হলো দেশটিতে আছে উন্নত শিক্ষার পাশাপাশি উন্নত জীবনযাত্রার সুযোগ।’ তিনি আরো জানান, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে মেধাবী শিক্ষার্থীদের জন্য বৃত্তি পাওয়ার সুযোগও আছে। সবচেয়ে আনন্দের বিষয় হলো বর্তমানে কিছু কোর্স আছে যেগুলোতে আইইএলটিএস, টোয়েফল, জিএমএটি, জিআরই, পিটিই বা এ জাতীয় কোনো কোর্স করা থাকার প্রয়োজন নেই।
কাজী মো. আবদুর রহমান স্যার আরো জানান, যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে যাওয়া অনেকে যতটা কঠিন মনে করেন সঠিক নিয়মে আবেদন করলে সেটি তেমন কঠিন নয়। এজন্য প্রয়োজন সঠিক নিয়মে, সঠিক সময়ে, সঠিকভাবে আবেদনপত্র পাঠানো।’ তাই যুক্তরাষ্ট্রে পড়তে যেতে সফলতার উদ্দেশ্যে আবেদন থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট সকল বিষয় অভিজ্ঞ কারো তত্ত্বাবধানে করা উচিত বলে মনে করেন তিনি।
মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে উচ্চশিক্ষা নিতে আগ্রহীরা বিস্তারিত তথ্যের জন্য যোগাযোগ করতে পারেন, কাজী ইমিগ্রেশন এন্ড এডুকেশন, ভিআইপি টাওয়ার, লেভেল-১, কাজীর দেউড়ি, চট্টগ্রাম। ফোন – ০১৭২৭২৮৬১১১। ই-মেইল: kaziimmigration@gmail.com ফেসবুক: http://www.facebook.com/kaziimmigration

- Advertistment -