আজিজা রূপা (বিবেক)

মঙ্গলবার , ৭ আগস্ট, ২০১৮ at ৫:৪৫ পূর্বাহ্ণ
67

 : “গাড়ি চলেনা চলেনা চলেনারে।ঘণ্টার পর ঘণ্টা গাড়ি যখন সত্যি চলে না, তখন মেজাজটা ৪৯ ডিগ্রির উপরে চলে। তখন ইচ্ছে করে কালকে থেকে যদি পারতাম শহরের রাস্তায় কোন ইঞ্জিনচালিত গাড়ি চলতে দিতামনা। ঘোড়ার গাড়ি চলবে ঘোড়ার গাড়ি। তাহলে আর এত জ্যাম ও হবেনা যত্রতত্র মানুষও মরবেনা। কারণ আমাদের দেশের সবাই নির্দ্বিধায় বুকের বলে ড্রাইভার হয়ে যায়। তারপর খুনি। ঘোড়ার গাড়ি চালাতে এত শিক্ষা লাগবেনা। ঘোড়া নিয়ন্ত্রণ করতে জানলেই হবে। ইঞ্জিন চালিত গাড়ি নিয়ন্ত্রণ করা এদেশের মানুষের পক্ষে সম্ভবনা। এদেশের মানুষ বেশী বুজর্গ। নিজেরটা নিজে বুঝে। তাই আগে যাওয়ার দৌড়ে মাঝপথে গাড়ি আটকিয়ে ভেটকি মেরে বসে থাকে। আর নয়তো কারো গায়ের উপর তুলে দিয়ে প্রাণটা কেড়ে নিয়ে পালাতে পারে। আর কেউ ক্ষমতা হাতে নিয়ে চেয়ারে বসে দাঁত কেলাতে পারে। কেউ প্রতিবাদ করতে গিয়ে অঙ্গ হারাচ্ছে নয়তো এক প্রাণের মায়ায় আরেক প্রাণ যাচ্ছে।

আমরা কেউ নিজেদের দোষ স্বীকার করতে রাজি না। আর এই কারণে ঘরে বাইরে এত অশান্তি এত সম্পর্কের ভাঙ্গন। এত মন খারাপের ছড়াছড়ি। কারো বুক চাপা দীর্ঘশ্বাস হার্টএ্যাটাক নাম নিয়ে কেড়ে নেয় শেষ নিঃশ্বাস। কারো জেদ বয়ে আনে যত্রতত্র অবলীলায় মৃত্যুর তান্ডব। প্রতিদিন শুধু মৃত্যু, মৃত্যু আর মৃত্যু। কেউ সময় শেষ করে মরছে কেউ অকালে মরছে। কেউ মরছে কেউ তা দেখে দাঁতকেলিয়ে হাসছে। রিকসাওয়ালা যখন রিকসা নিয়ে রাস্তায় নামে সে তখন নিজেকে ভাবে বাহ্‌ আমি কিন্তু রিকসার ড্রাইভার না প্লেনের ড্রাইভার। শাঁ শাঁ করে চালাবে ব্যাস ধাম করে রাঘব বোয়াল একটার নিচে ঢুকে যাবে আর নয়তো এক জায়গায় নিয়ে ফেলে দিবে। হায়রে জীবন কত সস্তা! ঘর থেকে বের হলেই মনে হয় জীবনটা ড্রাইভারদের হাতে। আগে যাওয়ার ধান্দায় কেউ কেউ ফুটপাতেও গাড়ি চালাচ্ছে। ফুটপাতে মানুষ যেগুলো হাঁটছে পারলে তাদের উপর উঠে যাচ্ছে। তখন আমাদের পুলিশ ভাইয়া আপাদের চোখ হাতে থাকে। দিয়া মরে যায় দিয়ার বাবা বলে আমি আর গাড়ি চালাবোনা, দিয়ার বন্ধুরা বলে ৪ জিবি ইন্টারনেট চাইনা নিরাপদ সড়ক চাইআর পুলিশ তাদের পিটিয়ে রক্তাক্ত করে। রাজনীতিবিদরা সুযোগ লুটে। সমস্যা কোনটাই সমাধান হয়না। যত্রতত্র মানুষও মরা বন্ধ হয়না। বোরকা পরা যুবতি মেয়েটা, ২ বছরের অবুঝ শিশুকন্যাটিও ধর্ষণের হাত থেকে বাঁচে না। একটু খানি বৃষ্টিতে শহরের নদী হওয়াও থামেনা। ডাক্তারদের ১০০০ টাকা ফিও নেয়া কমেনা। ৯৫০ টাকা গ্যাস বিল দিয়ে ও প্রতিদিন গ্যাসের অভাবে ঠিক মত রান্না করাও হয়না। প্রতি ইউনিট ৮ টাকা বিদ্যুৎ বিল দিয়েও অতি গরমে লোডশেডিং এর মজা খাও। এইসব কিছুর মূল কি জানেন বিবেক। সব জায়গায় মানুষ আছে কিন্তু কোথাও নাই বিবেক।

x