আগামী বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে ফেবারিট মানছেন ইউসুফ

শনিবার , ১১ আগস্ট, ২০১৮ at ৪:৪৮ পূর্বাহ্ণ
45

ইংল্যান্ডে ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের বাকি আছে এক বছরেরও কম সময়। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে আইসিসির টিকিট বিষয়ক তোড়জোড়। বিশ্বকাপে অংশগ্রহণকারী ১০টি দলও নিজেদের প্রস্তুতির মূল লক্ষ্য হিসেবে রাখছে ক্রিকেট বিশ্বকাপকেই। দল গুলো এখন সবাই দ্বিপাক্ষিক সিরিজ নিয়ে ব্যস্ত। আর তার মাঝেও বিশ্বকাপকে সামনে রেখে খেলছেন সবাই। নিজেদের প্রস্তুত করে নিচ্ছেন। যেহেতু এবারের বিশ্বকাপ ইংল্যান্ডে সেহেতু কন্ডিশন আর পরিস্থিতিটা কঠিনই হবে অন্য সবার জন্য। ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠেয় সবশেষ আইসিসি টুর্নামেন্ট তথা ২০১৭ সালের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে শিরোপা জিতেছিল পাকিস্তান। সরফরাজ আহমেদের নেতৃত্বাধীন দলটি যেন এক রকম বিপ্লব ঘটিয়েছিল। তাই দেশটির সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ ইউসুফের বিশ্বাস ২০১৯ সালে একই দেশে হতে যাওয়া ওয়ানডে বিশ্বকাপেও পাকিস্তানই শিরোপা জয়ের জন্য ফেবারিট। আগামী বিশ্বকাপ পাকিস্তান যে ফেবারিট সেটা নিয়ে দায়সারা কোন মন্তব্য করেননি পাকিস্তানের অন্যতম সেরা এই সাবেক ব্যাটসম্যান। নিজের এমন দাবির পক্ষে সুনির্দিষ্ট ব্যাখ্যাও দেন তিনি। পাকিস্তানের সংবাদ মাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ‘আমার মনে পাকিস্তানই বিশ্বকাপ জয়ে ফেবারিট। আমি এটা বলতে পারছি কারণ আমি বুঝতে পারছি বর্তমানে আমাদেরই বিশ্বের সেরা বোলিং আক্রমণ রয়েছে। সেটা উইকেট যেমনই হোক না কেন। নিজেদের বোলিং আক্রমণকে সেরা বলার কারণ হিসেবে ৪৩ বছর বয়সী এই সাবেক ক্রিকেটার বলেন, আমি কোন বোলিং আক্রমণকে সেরা বলি যখন সেটি সবদিক মিলিয়ে ভারসাম্যপূর্ণ হয়। এমন একটা আক্রমণ যা কিনা নিয়মিত বিরতিতে উইকেট নিতে পারে এবং প্রতিপক্ষ ব্যাটিং লাইনআপকে অস্থিতিশীল করে রাখে। ইউসুফ ইউহানা থেকে মোহাম্মদ ইউসুফে পরিণত হওয়া এই ব্যাটসম্যান আরও বলেন, আরো একটি বড় ব্যাপার হচ্ছে পাকিস্তান কোন খন্ডকালীন বোলারদের উপরে ভরসা করে থাকবে না। তাদের ৬৭ জন বিশেষজ্ঞ বোলার রয়েছে। যা কিনা বিশ্বকাপে অংশ নিতে যাওয়া অনেক দলেরই নেই। ইংল্যান্ডের ফ্ল্যাট ট্র্যাকে সফল হতে হলে বোলিং আক্রমণ শক্তিশালী হতে হবে। আমি বিশ্বাস করি সেই সেরা বোলিং আক্রমণটা পাকিস্তানেরই রয়েছে। পেস আক্রমণ এবং স্পিন মিলে দারুন এক বোলিং আক্রমণ রয়েছে পাকিস্তানের। আর সবচাইতে বড় কথা তরুণরা দলের হাল ধরছেন। ব্যাটিংটা একেবারে শতভাগ ধারাবাহিক না হলেও দলকে টেনে নেওয়ার মত ব্যাটসম্যান রয়েছে একাধিক। কাজেই পাকিস্তানকে হিসেবে না রাখার কোন কারণ দেখছেননা ইউসুফ। তবে পাকিস্তানকে বিশ্বকাপের ফেবারিট ঘোষণা দিলেও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারতের সম্ভাবনাও বাতিল করে দেননি ইউসুফ। কারণ ভারত বরাবরই শক্তিশালী একটি দল। কাজেই তাদেরকে হিসেবে রাখতে হবে আপনাকে। একইসাথে তার মতে ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ারও আসন্ন বিশ্বকাপে ভাল সুযোগ রয়েছে।

x