আইসিসির চাপে ক্ষুব্ধ হোল্ডিং

বৃহস্পতিবার , ১৩ জুন, ২০১৯ at ৫:৫০ পূর্বাহ্ণ
62

বিশ্বকাপে বাজে আম্পায়ারিংয়ের কারণে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে অনেকগুলো ভুল সিদ্ধান্তের শিকার হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এমনকি অজি পেসার মিচেল স্টার্কের অনেক বড় ‘নো’ বল এড়িয়ে যান আম্পায়াররা। নিজের দলের উপর এমন অবিচার হতে দেখে তখন প্রতিবাদ না করে থাকতে পারেননি ধারাভাষ্য কক্ষে থাকা ক্যারিবিয়ান কিংবদন্তি মাইকেল হোল্ডিং। ধারাভাষ্য কক্ষ থেকেই বাজে আম্পায়ারিংয়ের প্রতিবাদ করে মাইকেল হোল্ডিং বলেন, ‘আমি এটা বলার জন্য ক্ষমা চাচ্ছি যে এই ম্যাচে অত্যন্ত বাজে আম্পায়ারিং হয়েছে।’ হোল্ডিংয়ের এই কথার পর ধারাভাষ্যকারদের নিরপেক্ষ থাকতে ই-মেইলে একটি বার্তা পাঠায় আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)। এমনকি সেখানে এটাও বলা হয়, আম্পায়ারদের ভুল না ধরে তাদের ভালো কাজের যেন প্রশংসা করেন তারা। আইসিসির এমন বার্তায় এবার শক্ত জবাব দিলেন হোল্ডিং। আইসিসিকে দেয়া এক ই-মেইল বার্তায় তাদের মান নিয়ে প্রশ্ন তুলেন তিনি। তার মতে, ওই আম্পায়াররা ফুটবলের হলে তাদেরকে টুর্নামেন্ট থেকে তৎক্ষণাৎ নিষিদ্ধ করা হতো। ই-মেইল বার্তায় হোল্ডিং লেখেন, ‘যদি ওই আম্পায়াররা ফিফার তত্ত্বাবধানে থাকতেন, তাহলে তাদের ব্যাগ গুছানোর এবং বাড়ি ফেরার নির্দেশ দেওয়া হতো। তাদেরকে আর কোন ম্যাচ পরিচালনা করার দায়িত্ব দেয়া হতো না। একজন সাবেক ক্রিকেটার হিসেবে আমি মনে করি ক্রিকেট ম্যাচ সবসময় উচ্চমানের হওয়া উচিত। বাজে কাজ করলেও আম্পায়ারদের পক্ষ নেওয়াটা কি ঐ উচ্চ মানের ভিতরে পড়ে?’ আইসিসির বার্তায় ক্ষুব্ধ হোল্ডিং বিশ্বকাপের মাঝপথেই ধারাভাষ্য ছেড়ে দেয়ার হুমকিও দিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘আমি দুঃখিত, কিন্তু আমি এর অংশ হতে পারছি না। দয়া করে আমাকে জানিয়ে দেবেন, কার্ডিফে যাওয়ার পরিবর্তে আমি কি আমার দেশে ফিরে যাব কি না। কারণ এখানে যা বলা আছে, তা আমি কখনোই মানতে পারবো না। বরং এর অংশ না হয়ে খুশিই থাকব।’

x