আইএমএফের হিসাবে প্রবৃদ্ধি হবে ৭.১%

বুধবার , ১০ অক্টোবর, ২০১৮ at ১২:২২ অপরাহ্ণ
42

চলতি অর্থবছরে বাংলাদেশের অর্থনীতি ৭ দশমিক ১ শতাংশ হারে বাড়বে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিল (আইএমএফ)। ইন্দোনেশিয়ার বালিতে গতকাল মঙ্গলবার বিশ্ব ব্যাংক ও আইএমএফের বার্ষিক সাধারণ সভা চলাকালে প্রকাশিত ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক আউটলুকের হালনাগাদ প্রতিবেদনে এই পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। এমাসের শুরুতে বিশ্ব ব্যাংকও চলতি অর্থবছরের জন্য প্রায় আইএমএফের কাছাকাছি- ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস দেয়। তবে এই প্রক্ষেপণ এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের ৭ দশমিক ৫ শতাংশ ও সরকারের ৭ দশমিক ৮ শতাংশ প্রবৃদ্ধির প্রাক্কলনের চেয়ে কম। খবর বিডিনিউজ ও বাংলানিউজের।
আইএমএফের হিসাবে, চলতি বছর শেষে বাংলাদেশে ভোক্তা মূল্য সূচক (মূল্যস্ফীতি) ৫ দশমিক ৮ শতাংশ ও আগামী বছর ৬ দশমিক ১ শতাংশে পৌঁছাবে। তবে যুক্তরাষ্ট্র ও চীনের মধ্যে ব্যবসায় নীতি নিয়ে উত্তেজনা ও আমদানি শুল্ক আরোপের কারণে বাণিজ্য ক্ষতিগ্রস্ত হওয়ায় বৈশ্বিক প্রবৃদ্ধি বাধাগ্রস্ত হবে বলে আইএমএফের পূর্বাভাস বলছে।
সংস্থাটির হিসাবে, ২০১৮ ও ২-১৯ সালে বৈশ্বিক অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি হবে ৩ দশমিক ৭ শতাংশ, যা ৩ দশমিক ৯ শতাংশ হবে বলে জুলাইতে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছিল। পরবর্তী বছর ২০১৯ সালে এ ঝুঁকি আরও বাড়বে। এতে ক্ষয়িষ্ণু পূর্বাভাস করা হয়েছে উন্নয়নশীল অর্থনীতির দেশগুলোর ক্ষেত্রেও ।
বলা হচ্ছে, কর্তৃত্বপরায়ণ মার্কিন অর্থনীতি খারাপ প্রভাব থেকে নিজেদের প্রতিহত করতে পেরেছে। ট্যাক্স কমানো ও ব্যয় নীতি এর অন্যতম উদ্দীপক ছিল। কিন্তু ২০২০ সালের মধ্যে মার্কিন অর্থনীতিতেও এর প্রভাব পড়বে। পূর্বাভাসে ইউরোপের দেশ ও ব্রিটেনের ক্ষেত্রেও প্রবৃদ্ধি কমেছে। বলা হচ্ছে, এমন প্রবৃদ্ধির কারণে প্রধানতম কয়েকটি অর্থনীতির আকার ছোট হতে পারে।

x