অ্যান্ড্রয়েড থেকে সরানো হলো ফেস আনলক ফিচার

শনিবার , ৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ at ৪:৫০ পূর্বাহ্ণ
139

বর্তমানে বেশিরভাগ স্মার্টফোনে ফেস আনলক ফিচার রয়েছে। যার মাধ্যমে নিজের চেহারা দিয়ে ফোন আনলক করা যায়। কিন্তু এই ফিচারটি খুব একটা নিরাপদ নয়। কেননা আপনার ছবি দিয়েও অন্য কেউ আপনার ফোনটি আনলক করে ফেলতে পারে। তাই ফেস আনলক ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েড থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে সরিয়ে নিয়েছে গুগল। অ্যান্ড্রয়েড পুলিশের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ফেস আনলক ফিচার সম্পূর্ণভাবে মুছে ফেলা হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড টেন কিংবা তার পূর্ববর্তী সংস্করণ চালিত স্মার্টফোনগুলো থেকে।
স্মার্ট আনলক ফিচার হিসেবে ট্রাস্টেড ফেস ফিচারটি ২০১৪ সালে অ্যান্ড্রয়েডে যুক্ত করা হয়। অন্যান্য স্মার্ট আনলক ফিচার যেমন অন-বডি ডিটেকশন, ট্রাস্টেড প্লেস, ট্রাস্টেড ডিভাইস, ট্রাস্টেড ভয়েস এর পাশাপাশি ট্রাস্টেড ফেস ফিচারটিও এতদিন অ্যান্ড্রয়েডে ছিল। কিন্তু এবার এই ফিচারটি অ্যান্ড্রয়েড টেন এবং তার আগের সংস্করণ চালিত সকল স্টক এবং ওইএম ডিভাইসগুলো থেকে মুছে ফেলা হলো। এই নিরাপত্তা ফিচারটি সুরক্ষার জন্য কোনো বায়োমেট্রিক ডেটা ব্যবহার করে না বরং ফোন আনলকে আপনার চেহারার উপর নির্ভর করে। ফলে ছবির সাহায্যেও ফিচারটিকে বোকা বানানো যেতে পারে। অ্যান্ড্রয়েড পুলিশ জানিয়েছে, শুধু যে অ্যান্ড্রয়েড টেন থেকে ফিচারটি সরিয়ে নেওয়া হয়েছে তা নয় বরং অ্যান্ড্রয়েড পাই চালিত ওয়ানপ্লাস ৬টি, স্যামসাং গ্যালাঙি এস৯ এবং এস১০, নকিয়া ৩.২ ফোন থেকে ফিচারটি মুছে ফেলা হয়েছে। ফিচারটি সরিয়ে নেওয়ার কারণ হতে পারে এটি কখনোই অ্যান্ড্রয়েড ফার্মওয়্যারের অংশ হিসেবে ছিল না। বরং এটি সবসময় গুগল প্লে সার্ভিসের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রিণ হয়েছে। আর সম্প্রতি প্লে সার্ভিসের আপডেটে সম্ভবত ফিচারটি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। অ্যান্ড্রয়েড অথোরিটির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এমনও হতে পারে যে ফিচারটি সাময়িকভাবে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। কারণ গুগল নিজস্ব ফেস আনলক ফিচার নিয়ে কাজ করছে। তাই হয়তো অনুরূপ দুটি ফিচার রাখতে আগ্রহী নয় টেক জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

x