অমতে বিয়ে করায় বাবা গুণ্ডা পাঠিয়েছে

অভিযোগ এমপির মেয়ের

শুক্রবার , ১২ জুলাই, ২০১৯ at ১০:২৯ পূর্বাহ্ণ
47

পরিবারের অমতে ভিন্ন বর্ণের ছেলেকে বিয়ে করায় তাদের মারতে গুণ্ডা পাঠানো হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন ভারতের এক সংসদ সদস্যের মেয়ে। প্রাণের ভয়ে এখনো পালিয়ে বেড়াতে হচ্ছে জানিয়ে পুলিশের কাছে নিরাপত্তা চেয়েছেন তিনি। খবর বাংলানিউজের।
সমপ্রতি উত্তর প্রদেশের সংসদ সদস্য রাজেশ মিশ্রের মেয়ে সাক্ষী মিশ্র (২৩) সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এক ভিডিওবার্তায় এ অভিযোগ করেন। ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়েছে সে ভিডিও।
এতে দেখা যায়, বারেলির ওই সংসদ সদস্যের মেয়ে বাবা ও ভাইয়ের ডাক নাম ব্যবহার করে বলেন, মাননীয় সংসদ সদস্য পাপ্পু ভার্তোয়াল ও ভিকি ভার্তোয়াল, এবার ক্ষান্ত দাও আর শান্তিতে থাকো। কারণ, আমি সত্যিই বিয়ে করে ফেলেছি। এ সিঁদুর আমি ফ্যাশনের জন্য লাগিয়ে রাখিনি। বিয়ে করেছি বলেই লাগিয়েছি।
‘আর বাবা, রাজীব রানার মতো যে গুণ্ডা লাগিয়ে রেখেছেন আমার পিছে, আমি ক্লান্ত হয়ে গেছি। পালিয়ে থাকতে থাকতে আমরা ক্লান্ত। আমাদের জীবন ঝুঁকিতে আছে।’
বার্তসংস্থা পিটিআই জানায়, গত ৪ জুলাই পালিয়ে বিয়ে করেন সাক্ষী মিত্র ও অজিতেশ কুমার। ভিডিওতে বাবার উদ্দেশে এমপিকন্যা বলেন, অভি (অজিতেশ কুমার) আর ওর আত্মীয়দের হয়রানি বন্ধ করো। কারণ, তাদের কোনো দোষ নেই, যা করার আমি ও অভি করেছি। এবার শান্তিতে থাকো আর রাজনীতি করো। আমি খুশি থাকতে চাই, স্বাধীন থাকতে চাই।
তবে, মেয়ের এসব অভিযোগ অস্বীকার করে একে রাজনৈতিক চক্রান্ত বলে মন্তব্য করেছেন সংসদ সদস্য রাজেশ মিশ্র। তিনি বলেন, আমার মেয়ে সবসময় স্বাধীন। সে নিজেই তার সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আমি কাউকে হত্যার হুমকি দেইনি।
এ বিষয়ে পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক আর কে পান্ডে বলেন, আমরা ভিডিওবার্তাটি দেখেছি। ওই দম্পতিকে নিরাপত্তা দিতে পুলিশকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

x